বৃহস্পতিবার   ৩০ জুন ২০২২   আষাঢ় ১৭ ১৪২৯   ৩০ জ্বিলকদ ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৬৩

চৌদ্দগ্রামে স্ত্রী হাতে স্বামী খুন

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২২  

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে শুক্কুর আলী(৪৮) নামে এক ব্যক্তিকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁর স্ত্রী খোদেজা আক্তার শিল্পী ও ছেলে শাহিনকে হেফাজতে নিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার দুপুরে উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামের পূর্বপাড়ার ভুঁইয়া বাড়িতে। বিকেলে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা। 


স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খোদেজা আক্তার শিল্পীর বাবার বাড়ি ফেনী সদর উপজেলার মঠবাড়িয়ায় এবং স্বামী শুক্কুর আলীর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়। প্রায় ২০ বছর আগে তারা জায়গা ক্রয় করে গজারিয়া গ্রামে বসবাস শুরু করে।

তাদের ঘরে দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। প্রায় সময় পারিবারিক কলহ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া ও মারামারি লেগে থাকতো। রোববার দুপুরে হঠাৎ করে তাদের ঘরে চিৎকার শুনতে পায় প্রতিবেশীরা। এ সময় খোদেজা আক্তার শিল্পী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে এলাকাবাসী তাদের টয়লেটে গিয়ে গলাকাটা রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পায়। এ সময় এলাকাবাসী শিল্পীকে আটক করে কনকাপৈত পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দেয়। খবর পেয়ে উপ-পরিদর্শক রেজাউল করিম ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ উদ্ধার শেষে থানায় নিয়ে আসে। 


নিহতের শ্বাশুড়ি আয়েশা বেগম বলেন, শুক্কুর আলী অনেকটা মানসিকভাবে অসুস্থ্য ছিলেন। আমি দুইদিন আগে তার বাড়িতে আসলে সে আমাকে দেখে ভয় পায় এবং অসলগ্ন কথাবার্তা বলে। আমি আজ(রোববার) সকালে পাশ্ববর্তী লক্ষীপুরে আমার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যাই। পরবর্তীতে আমার মেয়ে খোদেজা আক্তার শিল্পী খবর পাঠিয়ে বলে-শুক্কুর আলী ব্রেইন স্ট্রক করেছে। আমি এসে তার রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পাই। 
স্থানীয় ইউপি সদস্য সাহাব উদ্দিন বলেন, শুক্কুর আলীর মৃত্যুর খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে এসে দেখি তার রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে আছে। স্থানীয়রা আমাকে জানায়-প্রায় সময় তাদের স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া লেগে থাকতো। আমি মৃত্যুর কারণ জানতে চাইলে তার স্ত্রী খোদেজা আক্তার শিল্পী আমাকে বলে-সেভ করতে গিয়ে বেলেটে গলা কেটে শুক্কুর আলীর মৃত্যু হয়েছে।  
চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শুক্কুর আলী রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর স্ত্রী খোদেজা আক্তার শিল্পী, ছেলে শাহীন ও প্রতিবেশীদের সাথে কথা বলে শুক্কুর আলীর মৃত্যু সম্পর্কে তথ্য নেয়া হচ্ছে। তদন্ত শেষে জানা যাবে-শুক্কুর আলী কি আত্মহত্যা করেছে, নাকি হত্যা করা হয়েছে। এজন্য জিজ্ঞাসাবাদ করতে স্ত্রী খোদেজা আক্তার শিল্পী ও ছেলে শাহিনকে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়েছে’।

এই বিভাগের আরো খবর