বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১   কার্তিক ৪ ১৪২৮   ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৬৪০৩

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী যুবলীগের শীর্ষ নেতাদের নিয়ে ষড়যন্ত্র!

রফিকুল ইসলাম শান্ত

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

প্রধানমন্ত্রীর শুদ্ধী অভিযানে সুযোগ সন্ধানীদের ফাঁদ!

ঢাকা মহানগর উত্তরের আওয়ামী যুবলীগ শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত মূলক ভাবে কয়েকটি নামসর্বস্ব নিউজ পোর্টালের মিথ্যা ও বিভ্রান্তি মূলক সংবাদ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে হীন স্বার্থ হাসিলের চেষ্ঠা করছেন একটি মহল। 

গণভবনে দলীয় নীতি নির্ধারনী এক সভায় দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে অব্যাহতির মধ্যদিয়ে অঙ্গসংগঠন সমূহের অনিয়ম ও বিশৃংখলা রোধে আইন শৃংখলা বাহিনীকে তৎপর হতে বলেন। প্রকাশ্যে অবৈধ অস্ত্র বহন করে দাবিয়ে বেড়ানো নেতাদের বিষয়ে হুশিয়ারী উচ্চারন করেন, প্রধানমন্ত্রী। সে থেকে নড়ে চড়ে বসেছে সরকারের একাধিক আইন শৃংখলা বাহিনী।
গতকাল রাজধানীতে ক্রিড়া ক্লাবের আড়ালে অবৈধ ক্যাসিনোর নামে পরিচালিত জুয়ার আসরে হানা দেয় র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এতে মতিঝিল ইয়ং মেনস স্পোটিং ক্লাবের সভাপতি ও মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে তার গুলশানের বাসা থেকে আটক করে এবং মতিঝিল ফকিরাপুলের কয়েকটি ক্যাসিনো থেকে প্রায় ২৮৫ জনকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারা দন্ডাদেশ দেয় র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সরওয়ার আলম। 
এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল বিকাল থেকে রাতভর বেশ কয়েকটি স্থানে অভিযানের ফলে স্থানীয়দের মাঝে আতংক বিরাজ করে এতে সাধারন যুবলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ভীতির সঞ্চার হয়। আর এর সুযোগে ঢাকা মহানগর উত্তরের আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি মাইনুল হোসেন খাঁন নিখিল, সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ ইসমাঈল হোসেন ও মহানগর দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজাসহ শীর্ষনেতাদের নামে কয়েকটি নামসর্বস্ব নিউজ পোর্টালের মিথ্যা ও বিভ্রান্তি মূলক সংবাদ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে হীন স্বার্থ হাসিলের চেষ্ঠা করছেন একটি মহল। যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট এবং রাজনৈতিক অস্থীতিশীলতা তৈরীর পায়তারা মাত্র।

এই বিভাগের আরো খবর