ব্রেকিং:
ক্রিকেটারদের এ আন্দোলন কারোর বিরুদ্ধে নয়, এ আন্দোলন দাবি আদায়ের : ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান

বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৪ সফর ১৪৪১

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
দুই সাংসদসহ ২২ জনের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা আবরারের রুমমেট মিজান ৫ দিনের রিমান্ডে ফিটনেস নবায়নহীন যানবাহনে তেল নয়: হাইকোর্ট ফেনীর চাঞ্চল্যকর নুসরাত হত্যার রায় কাল ন্যাম সম্মেলন : প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার আজারবাইজান যাচ্ছেন জয়পুরহাটে গৃহবধু ধর্ষণ ও হত্যায় সাতজনের ফাঁসি
২৭৬

গরমে ভাইরাল জ্বর এড়াবেন যেভাবে

প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০১৯  

গরম মানেই বাতাসে তীব্র আর্দ্রতা আর প্যাচপ্যাচে ঘাম। আবার কোনো কোনো দিন তাপমাত্রা বেশি হলেও সঙ্গে দুপুরের দিকে শুষ্ক বাতাস আর বালু থাকে। আবার কোনো দিন মেঘলা আর তারপরেই বৃষ্টি। এই হলো গ্রীষ্মের আবহাওয়া। অর্থাৎ কখন কেমন হয় তা বোঝা মুশকিল।

তাই পরিবর্তনশীল আবহাওয়ার কারণে সর্দিকাশি, পে‌টের সমস্যা ইত্যাদি হতেই থাকে। আর এই সময় থেকেই ঘরে ঘরে ভাইরাল জ্বর দেখা যায়। তাই আগে থেকেই সাবধান হওয়া দরকার। ঘরোয়া কিছু কাজেই খুব সহজ এড়ানো যায় ভাইরাল জ্বর।

ফিভার বা ফ্লু যা এড়াতে দরকার মাত্র দুই কোয়া রসুন আর একটু আদা। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে দুই কোয়া কাঁচা রসুন আর কাঁচা আদা চিবিয়ে খান। প্রতিদিন এটি খেলেই সহজে এড়াতে পারবেন সর্দিকাশি, পেটের সমস্যা ও ভাইরাল জ্বর।

 
মূলত রসুনে অ্যান্টি ব্যাকটিরিয়াল ও অ্যান্টি ফাংগাল উপাদান থাকে। এছাড়াও অ্যান্টিবায়োটিকের মতো কাজ করে রসুন। অন্যদিকে আদা রক্ত সঞ্চালন ক্ষমতা বাড়ায় ও কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণে রাখে। আদা-রসুন একসঙ্গে খেলে তাই, শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বাড়ে। ফলে এড়ানো যায় ভাইরাল ফিভার।

চিকিৎসকরা বলেন, আরো বেশ কয়েকটি বিষয় মেনে চললে এড়ানো যায় ভাইরাল ফিভার। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা খুব দরকার। সর্দিকাশি বা জ্বরের রোগীর সঙ্গে হাত মেলালে অবশ্যই সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন।

মুখ ও হাত না ধুয়ে চোখে, নাকে বা মুখে হাত দেবেন না। এতে জীবাণু ছড়ায়।

যেহেতু ভাইরাল ফিভারের অন্যতম কারণ হলো ডিহাইড্রেশন তাই অবশ্যই বেশি করে পানি পান করুন।

গরমে মদ্যপান বা ধূমপান করবেন না কোনো ভাবেই।

খাবারের সামনে হাঁচি বা কাশি দেয়া থেকে বিরত রাখুন।

সব সময়ে হ্যান্ড ওয়াশ ব্যবহার করুন।