এই দিন

বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০   অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৯৮

মহানবীকে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে লালমাইয়ের কনকশ্রীতে বিক্ষোভ

এম এ মন্নান

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২০  

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে ফ্রান্সে ব্যাঙ্গচিত্র নির্মাণ, প্রদর্শণ ও কূটুক্তির প্রতিবাদে কুমিল্লা লালমাইতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। শুক্রবার দুপুর ২টায় লালমাই উপজেলার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড  কনকশ্রী মসজিদের ইমাম সাহেবদের ও যুব সমাজ উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়। 


সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কনকশ্রী কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব মাওলানা হাবিবুর রহমান, কনকশ্রী দক্ষিণ পাড়া আল-মদিনা জামে মসজিদের খতিব মসিউর রহমান, কনকশ্রী মধ্যেম পাড়া  খতিব মো. ইমাম হোসেন, কনকশ্রী কেন্দ্রীয় মসজিদের সভাপতি আবুল বাসার, অত্র এলাকার মেম্বর সাইলদুল ইসলাম (তিতু), বিসমিল্লা জুয়েলার্স এর মালিক মো. জসিম উদ্দিনসহ প্রমুখ।


সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, ইয়ুথ সোসাইটির অধিকাংশ সদস্য বৃন্দ সহ এলাকার সাধারণ জনগণ।


বক্তারা মহানবীকে নিয়ে ব্যাঙ্গচিত্র প্রত্যাহার করে প্রকাশ্যে ক্ষমা প্রার্থনার আহ্বান জানান। তারা বলেন, আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে বিশ্বে মুসলমানের কলিজায় আঘাত হেনেছে। ফ্রান্স জানে না মুহাম্মদ (সাঃ) আমাদের হৃদয়ের স্পন্দন। নবী (সাঃ) এর জন্য জীবন দিতে মুসলমানরা কুন্ঠাবোদ করেনা। তারা বলেন, অবিলম্বে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিতে হবে।


সমাবেশে বক্তারা আরো বলেন, বিশ্বের মধ্যে বৃহত্তম মুসলিম রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের পরিচিতি রয়েছে, অতএব আমাদের দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে ফ্রান্সের বিষয়ে অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে। তাদের সাথে কৃত বাণিজ্যিক চুক্তিগুলো প্রত্যাহার করতে হবে। যতোদিন পর্যন্ত ফ্রান্স সরকার তাদের নিজেদের কৃতকর্মের জন্য বিশ্ববাসীর কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাইবে, ততোদিন পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাবে তৌহিদী জনতা।


বক্তারা আরো বলেন, রাসুলকে (সা.) দুনিয়ার সবকিছু থেকে ভালোবাসতে না পারলে তার ঈমান থাকবে না। অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, শতকরা ৯৫ ভাগ মুসলমানের এই বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রীর সরকার আজ পর্যন্ত ফ্রান্সে আমাদের নবীকে যে অপমান করা হয়েছে তার প্রতিবাদ করে নাই। 
 

এই বিভাগের আরো খবর