সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯   ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৭৭

উত্তর ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি অনিক রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার

তরুণ কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২ অক্টোবর ২০২২  

কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার বলেছেন ❝ জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি আবু কাউছার অনিকের বিরুদ্ধে একের পর এক রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় আসামী করার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই। আবু কাউছার অনিক করোনাকালিন সময়ে নিজের জীবন বিপন্ন করে করোনায় মৃতদের সৎকার দাফন সহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে নানা সেবামূলক কাজে বিশেষ অবদান রেখেছে। অনিক সম্মুখসাড়ির একজন করোনাযোদ্ধা। তার সাথে যা হচ্ছে তা মোটেই ভালো হচ্ছে না।

 

জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটার পর একটা মিথ্যা মামলায় তাকে জড়িয়ে যারা রাজনৈতিক ফয়দা হাসিল করতে চাইছে দুঃখজনক হলেও সত্যি, তারা নিজ দলের মাঝে ঘাপটি মেরে থাকা খন্দকার মোস্তাকের অনুসারী। উত্তর জেলা ও দেবিদ্বার আওয়ামী লীগ ও অংগ সংগঠনকে ধ্বংস করতে চাইছে তারা । নেত্রীর বিশ্বস্ত ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের কোনঠাসা করে হাইব্রিড নেতারা নানা চক্রান্তে মেতে উঠেছে। কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে হুশিয়ারি দিয়ে বলতে চাই এই জঘন্য খেলা বন্ধ করুন।

অনিকের দ্রুত মুক্তির দাবি এবং ত্যাগী নেতাকর্মীদেরকে নিয়ে মিথ্যা  ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ সহ আওয়ামী অঙ্গসংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপথে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। আমরা এইসব ষড়যন্ত্রের  প্রতিবাদে অচিরেই সভা সমাবেশ সহ প্রতিবাদ মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছি❞। উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সহ-সভাপতি খমিনি, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম রুবেল হোসেন, দেবিদ্বার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন রুবেল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সহ সমর্থক নেতাকর্মীরা একই দাবী জানিয়ে ষড়যন্ত্রমুলক ভাবে তাকে মামলায় ফাঁসানোর দাবি করে অনিক এর দ্রুত মুক্তির দাবি জানান। অন্যথায় দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আন্দোলন ও অনিকের মুক্তির দাবীতে রাজপথে নামবেন বলে জানান। 

উল্লেখ্য কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি আবু কাউছার অনিক কুমিল্লার সদর থানায় দায়ের করা এক ধর্ষণ মামলায় সহযোগিতার অভিযোগে আটক সংশ্লিষ্ট থানায় সাপ্তাহিক হাজিরার শর্তে জামিন পেয়েছেন। তার বিরুদ্ধে আদালতে চলমান ২টি মামলার মধ্যে একটি মামলার জামিন পেলেন তিনি। 

শুরু থেকেই মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে রাজনৈতিক ভাবে হেয় করতে এই মামলায় তাকে আসামী করা হয়েছে বলে দাবি করে করে আসছিলো আবু কাউছার অনিক  ও দলীয় নেতাকর্মীসহ পরিবারের সদস্যরা। একটি মামলায় জামিন পেলেও নূরপুর তার নিজ গ্রামের আলোচিত শান্ত হত্যাকান্ড মামলায় পিবিআই'র শোন এরেস্ট দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করে আদালত। আর এ কারণে ছাত্রলীগ নেতা অনিক সহসাই কারামুক্ত  হতে পারছেন না বলে জানিয়েছে তার আইনজীবিরা।

 

রবিবার (২ অক্টোবর) দুপুরে কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা সুলতানা তাকে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখানোর এ আবেদন মঞ্জুর করেন। এর আগে একই দিন সকালে আরেকটি ধর্ষণ মামলায় প্রতি সপ্তাহে থানায় হাজির থাকার শর্তে জামিন দেন কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-১ এর বিচারক কাজী আব্বাস উদ্দিন।।

আদালতে ছাত্রলীগ নেতা আবু কাউছার অনিকের আইনজীবি এডভোকেট সৈয়দ তানভীর আহমেদ ফয়সাল ও বাদী পক্ষের আইনজীবি মো. আক্তার হামিদ খান কবির জানান, গত বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কুমিল্লার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রসিকিউশন শাখায় আসামি আবু কাউছার অনিককে গ্রেফতার দেখানোর জন্য আবেদন জমা দেন। দেবীদ্বারের নূরপুর গ্রামে আলোচিত শান্ত হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পরিদর্শক মো. তৌহিদুল ইসলাম। 

এর আগে কুমিল্লা সদর থানায় দায়ের হওয়া মামলায় ভ্যান চালক আরব আলী নামে এক ব্যক্তিকে ধর্ষণে সহযোগিতা অভিযোগে আসামি আবু কাউছার অনিককে গত ২৪ সেপ্টেম্বর শনিবার দুপুর ১২টায় কক্সবাজারের কলাতলি এলাকার সোনারবাংলা হোটেলের সামনে থেকে র‍্যাব ১৫এর সদস্যরা তাকে গ্রেপ্তার করে। পরদিন ২৫ সেপ্টেম্বর রোববার দুপুরে কুমিল্লা সদর থানা পুলিশ মামলায় অনিককে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। অতঃপর দেবীদ্বার থানায় দায়েরকৃত শান্ত হত্যা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করে পিবিআই।

এই বিভাগের আরো খবর