সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯   ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৪৭

শিশুদের প্রশ্নের জবাব দিলেন দুই প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক    

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২  

শিক্ষা, স্বাস্থ্য, মতপ্রকাশ, সিদ্ধান্ত গ্রহণ, বিনোদন ও সুরক্ষার বিষয়ে শিশুদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম ও সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের একনেক সম্মেলন কক্ষে ‘চাইল্ড পার্লামেন্টে’ শিশুদের প্রশ্নের জবাব দেন এই দুই প্রতিমন্ত্রী। ৫২ জন শিশু এতে অংশ নেয়।


ঢাকায় ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্কফোর্স (এনসিটিএফ), সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশ ও প্লান ইন্টারন্যাশনাল ‘চাইল্ড পার্লামেন্টে’র আয়োজন করে।

এতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের জন্য পর্যাপ্ত উপকরণের ব্যবস্থায় সরকারের পদক্ষেপ, শিশুদের মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে সরকারের উদ্যোগ, অনলাইনে যৌন হয়রানি বন্ধে পরিকল্পনা, শিশু ও তরুণদের আত্মহত্যা প্রবণতা নিয়ে ভাবনা ও উদ্যোগ, বেদেপল্লির শিশু, যৌন কর্মে নিয়োজিত মায়েদের শিশু, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও চরাঞ্চলের শিশুদের উদ্যোগ নিয়ে প্রশ্ন রাখে শিশুরা।

 

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, সব শিশু ও তাদের পরিবারকে উদ্বুদ্ধ করতে উপবৃত্তি বৃদ্ধি, বিনামূল্যে বই বিতরণ, স্কুলের নতুন ভবন তৈরি কার্যক্রমের সঙ্গে মানসিক স্বাস্থ্য নিয়েও সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ ও পরিকল্পনা আছে।

তিনি আরও বলেন, শিশুদের মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন এখন জরুরি বিষয়। তবে পরিবারে অস্থিতিশীলতা, স্কুলগুলোতে পরিক্ষাভীতি, লেখাপড়ার কম্পিটিশন, শিক্ষকদের চাপ শিশুদের অনেক প্রভাবিত করে। স্কুলগুলোকে আনন্দকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। পরিবারে শৃঙ্খলা রক্ষা করতে হবে। শিশুদের জীবনকে সুন্দর করার দায়িত্ব সবার।


সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু বলেন, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে আমাদের মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন প্রকল্প রয়েছে। তবে এই অধিবেশন আমাদের আরও ভাবতে সাহায্য করবে। শিশু ও তরুণদের সুস্থ-স্বাভাবিক জীবন নিশ্চিতকরণে সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ আগেও নিয়েছে এবং নিচ্ছে। তবে শিশুকে সঠিক শিক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব পরিবারের।

প্রতিবছরই চাইল্ড পার্লামেন্ট অধিবেশনের মাধ্যমে শিশুদের মতামত জানা হয়। এবারের অধিবেশনে ৩ হাজার শিশুর ওপরে করা জরিপ ও এক হাজার ৩১৭ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুর সঙ্গে আলোচনা করে প্রশ্ন ও আলোচ্য বিষয় নির্ধারণ হয়।

এই বিভাগের আরো খবর