বুধবার   ২৫ মে ২০২২   জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯   ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
২২

দেশের স্পিনারদের নিয়ে শঙ্কা দেখছেন নির্বাচকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত: ১১ মে ২০২২  

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের ক্রিকেটে পেস বিপ্লবের ভিড়ে, ভালো মানের স্পিনার নেই পাইপলাইনে। নির্বাচক ও সাবেক স্পিনার আবদুর রাজ্জাক বলেন, জাতীয় দলের স্পিনাররাও সেভাবে রাখতে পারছে না অবদান। এ নিয়ে কাজ করতে হবে ক্রিকেটারদেরই। গুরুত্ব দিতে হবে তৃণমূলে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজের দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলেই বিশ্বাস রাজ্জাকের।
অশনির অশনিসংকেত। সারাদিন অবাধ্য বৃষ্টি। কখনও ঝুম, কখনও টিপটিপ। ক্রিস সিলভারউডের গালে হাত। মাথায় হাত লঙ্কান টিম ম্যানেজমেন্টের। একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথমদিনটাই ভেস্তে গেছে ৫১ বলেই।

স্বস্তি ছিল না টাইগার ডাগআউটেও। বিশেষ করে বিসিবি একাদশের মোড়কে থাকা এই দলটায় তারুণ্যের জয়গান। রিপন-মুশফিক-মুগ্ধতে মুগ্ধতা খুঁজতে বিকেএসপিতে ছুটে গিয়েছিলেন দুই নির্বাচক বাশার আর রাজ্জাক। প্রথম দিনের খেলা ভেস্তে যাওয়ায় আপেক্ষ সঙ্গী, তাদেরও।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন বলেন, 'তরুণ ছেলেগুলো উঠে আসছে। আমার মনে হয় এটাই বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ। বাংলাদেশের ক্রিকেট ঐতিহ্যটাকে এরাই পরিবর্তন করতে পারবে। শুধু এরাই না, আমাদের রাডারে আরও কিছু ছেলে আছে যাদের আমরা মনে করি ভবিষ্যতে অনেক কিছু করবে।'   

এদিকে আরেক নির্বাচক আবদুর রাজ্জাক বলেন, 'আবহাওয়াকে আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন না। ম্যাচটা হলে আমাদের খেলোয়াড়দের জন্যও ভালো হতো, এবং লঙ্কানদের জন্যও ভালো হতো।'

সিম নাকি স্পিনিং। টেস্ট ম্যাচ শুরু হওয়ার আগেই আলোচনায় কেমন হবে সিরিজের উইকেট। প্রশ্ন উঠলো ঘরের মাঠে টাইগারদের মুল শক্তি স্পিনে, বর্তমান সময়ে আদৌ কতটা শক্তিশালী বাংলাদেশ? এ নিয়ে কিছুটা আক্ষেপই ঝড়লো রাজ্জাকের কণ্ঠে।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, 'যদি বলেন স্পিনারদের কথা, তাহলে আমার মনে হচ্ছে আরও ইম্প্রুভ করতে হবে। আর নতুন যারা আছে তাদের আরও ভালো করতে হবে। অনেক সময় লিগে ভালো খেলে ফেলা যায় তবে জাতীয় দলে খারাপ করতে দলে সুযোগ পাওয়া কঠিন হয়ে যায়।' 

তাসকিন-শরিফুলের ইনজুরি সঙ্গে সাকিবের করোনার জন্য প্রথম টেস্টে না খেলার ফলে চট্টলা টেস্টে একাধিক পরিবর্তন আসা নিশ্চিত। তবে সম্ভাব্য একাদশের বিষয়ে রহস্যই রাখলেন নির্বাচকরা। কে ফেভারিট সে তত্ত্বে না গিয়ে, আভাস দিলেন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেটের।
বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল নির্বাচক বলেন, 'ফেভারিট হিসেবে বললে, আমাদের ঘরের মাঠে খেলা এটাই আমাদের সুবিধা। তবে আমার কাছে মনে হয় দুইটা দলই একই ধরনের দল। তো ভালো টেস্ট ম্যাচ হবে বলে আমি আশা করি। '

লঙ্কা সিরিজ শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজে যাওয়ার আগে ক্রিকেটারদের একটি লংগার ভার্সনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলানোর পরিকল্পনা করছেন নির্বাচকরা।

এই বিভাগের আরো খবর