শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
২৪ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ দু’চার দিনের মধ্যে ওষুধ আসছে : কাদের ‘ডেঙ্গু নিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সরকার ব্যর্থ’ ক্ষমা চাইলেন মেয়র আতিকুল রাজধানীর ২৪ হাটে পশু বেচাকেনা শুরু ডেঙ্গু প্রতিরোধে ৫৩ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্ধ ঢাবির ৬৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার দেশের চতূর্থ মানব রোবট তৈরি করলো কুবি শিক্ষার্থীরা
২০

কাশ্মীর ইস্যুতে সব পদক্ষেপ নেয়ার হুঁশিয়ারি পাকিস্তানের

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ আগস্ট ২০১৯  

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সংক্রান্ত ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। এর ফলে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ আলাদা কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে পরিণত হল। ভারতের এ ঘোষণার পরপরই কাশ্মীর ইস্যুতে ‘হুমকি দিয়ে’ মুখ খুলেছে পাকিস্তান। 
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘‘জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সরকারের নেয়া ওই পদক্ষেপকে পাকিস্তান নিন্দা জানিয়ে প্রত্যাখান করে। ওই অঞ্চল আন্তর্জাতিকভাবেই বিতর্কিত অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। তাই ওই অঞ্চল নিয়ে ভারত সরকারের একতরফা সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হবে না। জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের দেয়া রেজুলেশনের কথা মনে করিয়ে দিয়ে বলা হয় ভারত সরকারের ওই সিদ্ধান্ত কাশ্মীর ও পাকিস্তানের জনগণ কখনো গ্রহণ করবে না।’
‘আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিতর্কিত অঞ্চলের অংশীদার হিসেবে পাকিস্তান ভারতের ওই অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সব ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’
দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কাশ্মীরের ব্যাপারে পাকিস্তান তার অবিচল প্রতিশ্রুতি আবারও নিশ্চিত করবে। সোমবার রাজ্যসভায় পাশ হয়েছে বিলটি। আগামীকাল বুধবার এটি লোকসভায় পাশ হলেই রাজ্যের মর্যাদা হারিয়ে কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে পরিণত হতে যাচ্ছে কাশ্মীর। এর আগে ভারতের সংসদে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঘোষণা দেন, সংবিধান অনুযায়ী জম্মু ও কাশ্মীরকে দেওয়া বিশেষ সুবিধা বাতিল করা হবে। এ হিসেবে ভারতের কেন্দ্রীয় শাসনের আওতায় চলে আসবে জম্মু ও কাশ্মীর। আর এর পরই পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ইস্যুতে সম্ভাব্য সব পথই অবলম্বন করা হবে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে জানায়।

এই বিভাগের আরো খবর