বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১   কার্তিক ৪ ১৪২৮   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৩৫৯

আজ জরুরি বোর্ড সভা বিসিবির

তরুণ কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯  

   
ক্রিকেটারদের আন্দোলনে অচল হওয়ার অবস্থা দেশের ক্রিকেটাঙ্গন। সোমবার উপস্থাপন করা ১১ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত ২২ গজ থেকে দূরে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) পরিচালকরা জানিয়েছেন, ক্রিকেটারদের এমন কর্মসূচির কথা আগে টের পাননি তারা। তবে অনেক পরিচালকই ক্রিকেটারদের পক্ষে থাকার কথা শুনিয়েছেন। দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে আজ (মঙ্গলবার) জরুরি বোর্ড সভা ডেকেছে বিসিবি।

বোর্ডের দায়িত্বশীল এক পরিচালক বোর্ড সভা ডাকার কথা বাংলা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেছেন। ওই পরিচালক বলেছেন, ‘সামনে ভারত সিরিজ। তার আগে বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করা হচ্ছে। আমরা কোনোভাবেই ক্রিকেটারদের বিপক্ষে নই। এই কারণে দ্রুত বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে বোর্ড সভা ডাকতে হয়েছে।’

আরেক পরিচালক তানজিল আহমেদ এক ফেসবুক পোস্টে ক্রিকেটারদের সঙ্গে থাকার কথা জানিয়েছেন। এছাড়া বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসও ক্রিকেটারদের দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

যদিও জালাল ইউনুসের আপত্তি ভিন্ন জায়গায়। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘ক্রিকেটারদের দাবিগুলো অবশ্যই যুক্তিসঙ্গত। এগুলো এমন কিছু না যে, মানা সম্ভব নয়। এগুলোর বেশির ভাগই বাস্তবায়ন হচ্ছে বা হবে। যেমন বিপিএল আগামী বছর যেটা হবে, সেটা আগের মতোই হবে। ফ্র্যাঞ্চাইজি আদলে এটা তো আমরা আগেই বলে দিয়েছি। বাকি যেগুলো আছে সবই পূরণ করার মতো। সমস্যা হচ্ছে তারা এই দাবিগুলো নিয়ে আমাদের কাছে কখনও আসেনি। সরাসরি মিডিয়ার মাধ্যমে আল্টিমেটাম দেওয়াটা বিস্ময়করই।’

হঠাৎ করে ক্রিকেটাররা আল্টিমেটাম দেওয়ায় অনেকটা ধাক্কা খেয়েছে ক্রিকেট বোর্ড। এ প্রসঙ্গে জালাল ইউনুসের বক্তব্য, ‘সত্যি কথা হলো, এটা আমাদের জন্য অস্বস্তিকর। আমাদের কেন মিডিয়ার কাছ থেকে শুনতে হবে। ক্রিকেটাররা আমাদের কাছে আসতে পারতো। কিন্তু আসেনি। তারা দাবি জানালে আমরা বিষয়টি দেখতাম। আলোচনা ফলপ্রসূ না হলে হয়তো এই প্রক্রিয়ায় থাকতে পারতো। কিন্তু তারা হুট করেই ক্রিকেটের সবকিছু বন্ধ করে দিলো।

প্রসঙ্গত, সোমবার ১১ দফা উত্থাপন করার পাশাপাশি দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দূরে থাকার আল্টিমেটাম দিয়েছেন ক্রিকেটাররা। অথচ ভারত সফরকে সামনে রেখে ২৫ অক্টোবর জাতীয় দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা। সামনে গুরুত্বপূর্ণ সফর, তবু এই ধর্মঘটকে ‘সময়োপযোগী’ এবং ‘যৌক্তিক’ বলে মনে করছেন ক্রিকেটাররা।

এই বিভাগের আরো খবর