মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮   ২০ সফর ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৫৬

রাখে আল্লাহ, মারে কে - এম এম ইমরুল কায়েস

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২১  

বাস স্টপেজ, রেল স্টেশন কিংবা ফুটপাথে যেসব ছিন্নমূল মানুষ রাত্রিযাপন করে; রোদ, বৃষ্টি বা শীতে যাদের কোনো আশ্রয় নেই- একেবারে প্রান্তিক এসব মানুষের কথা  একবার চিন্তা করুনতো? মুজিববর্ষ উপলক্ষে দ্বিতীয় পর্যায়ে সারাদেশে গত রবিবার এরকম ৫৩ হাজার ৩৪০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের কাছে ঘরসহ জমির দলিল হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ২৩ জানুয়ারি প্রথম দফায় আরও ৬৯ হাজার ৯০৪টি হতদরিদ্র পরিবারকে পুনর্বাসন করেছেন তিনি। জাতির পিতার কন্যা ঘোষণা দিয়েছেন, বাংলাদেশের কোনো মানুষ আর গৃহহীন থাকবে না। দেশের প্রতিটি মানুষকে উন্নয়নের মূলধারায় যুক্ত করা হবে। অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের এই মডেলকে বলা হয় ‘শেখ হাসিনা মডেল’।

প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার ৩৩ জনের একটি টিম নিয়ে গত কয়েক দিন ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনার এই ড্রিম প্রজেক্টের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারের বিভিন্ন স্পট চষে বেড়িয়েছি। পরবর্তীতে গত রবিবারে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা থেকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হই এবং তিনি উপকারভোগীদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব গৃহ হস্তান্তর করেন। উপকারভোগী অনেক পরিবারের সঙ্গে আমি ব্যক্তিগতভাবে ঘনিষ্ঠ হয়ে কথা বলেছি। আবেগ আপ্লুত হয়ে তারা অনুভূতি প্রকাশ করেছেন, তাদের আনন্দ অশ্রু দেখেছি। মাদার অব হিউম্যানিটি শেখ হাসিনার প্রতি তাদের অকৃত্রিম ভালোবাসা আর অশেষ কৃতজ্ঞতাবোধ পর্যবেক্ষণ করি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার আইয়ুব খান বলেন, আমডার লাহান গরীব মাইনষের লাইগগা শেখ হাসিনারে যেন‌ আল্লাহ বাছায় রাহে।

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলের শকুন্তলা ভৌমিকের অভিব্যক্তি, আমি তাইনের মা, আমার পুরি আমারে ঘর দিছে।

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের বীরঙ্গনা শীলা গুহ’র উচ্চারণ, আমি এখনও আমার বোন শেখ হাসিনার জন্য প্রতিদিন দু’টাকার একটি করে বাতি জ্বালাই; যাতে তিনি করোনা ভাইরাসের আক্রমণ থেকে রক্ষা পান, আমার বোন যাতে হাজার বছর বেঁচে থাকেন।

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য ২১ বার চেষ্টা করা হয়েছে। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট করা হয়েছে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা; ব্যাকআপ প্ল্যান হিসেবে সেদিন রাইফেল দিয়ে গুলিও করা হয়। কিন্তু রাখে আল্লাহ, মারে কে? আইয়ুব খান, শকুন্তলা ভৌমিক আর শিলা গুহ এর মতো লক্ষ লক্ষ মানুষের দোয়া-আশীর্বাদ শেখ হাসিনাকে রক্ষায় দুর্ভেদ্য বর্ম হয়ে কাজ করে।

জনমানুষের মঙ্গলের জন্য মহান সৃষ্টিকর্তা এসব ঘৃণ্য ও বর্বর অপচেষ্টা থেকে বাঁচিয়ে রাখেন বাংলাদেশের প্রাণভোমরা শেখ হাসিনাকে। গ্রেনেড অথবা বুলেটের কি সাধ্যি তাকে ছোঁয়ার! এই জনপদের উন্নয়ন ও কল্যাণের স্বার্থে সর্বোপরি বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে আল্লাহতায়ালা সুস্থ রাখুক এবং দীর্ঘায়ু করুক- এ প্রার্থনা করি।

লেখক: প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব-১

এই বিভাগের আরো খবর