শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ১৬ ১৪২৯   ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১২৫

দেবীদ্বারে মামলা তুলে না নেয়ায় ইউপি মেম্বারকে কুপিয়ে জখম

দেবীদ্বার(কুমিল্লা) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

কুমিল্লার দেবীদ্বারে এক পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা মামলা তুলে না নেয়ায় এক ইউপি মেম্বারকে কুপিয়ে জখম করাসহ, বাড়ি-ঘর ভাংচুর লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার রাত ৮টায় উপজেলার বরকামতা ইউনিয়নের ব্রাক্ষণখাড়া গ্রামে। বরকামতা ইউনিয়ন আ’লীগের ৭নং ওয়ার্ড আ’লীগ সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ইউপি মেম্বার নির্বাচন পূর্বে দায়ের করা সন্ত্রাসী মামলা তুলে না নেয়ায় ওই হামলা চালিয়েছে বলে মামলা সূত্রে জানা যায়। 

আহত আ’লীগ নেতা মুকবল হোসেন মেম্বারের স্ত্রী মামলার বাদী ফাতেমা বেগম জানান আমার স্বামী গত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন এবং মেম্বার প্রার্থী হাসেমের পক্ষে কাজ না করায় আমাদের উপর হামলা বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে। ওই ঘটনায় গত ২৩ জানুয়ারী দেবীদ্বার মোঃ হারুন-অর রশিদ, আবুল হাসেম মেম্বারসহ ৮জন নামে এবং অজ্ঞাত ১০জনকে অভিযুক্ত করে দেবীদ্বার থানায় মামলা দায়ের করি। 

ওই ঘটনায় পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ হারুন-অর-রশিদ ও ফুটবল প্রতীকের মেম্বার প্রার্থী আবুল হাসেম মেম্বার ২০/২৫ জন সমর্থক নিয়ে আমাদের বাড়িতে হামলা মারধর ও ও ভাংচুর লুটপাট করে। সন্ত্রাসীরা আমার স্বামী বরকামতা ইউনিয়ন পরিষদ’র সাবেক মেম্বার ও ৭নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারন সম্পাদক মুকবল মেম্বার’(৬০)’কে কুপিয়ে, লাঠিপেটায় হাত-পা ভেঙ্গে এবং মাথা ফাটিয়ে মারাত্মক আহত করে। রাতেই আমার স্বামীকে মুমূর্ষবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করি। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় কোভিড-১৯ সুরক্ষা টিকাদান শেষে  ব্রাক্ষণখাড়া গ্রামের মনির হোসেন তার স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে নবিয়াবাদ গ্রামের পিতা মৃত আবু তাহের’র পুত্র মোঃ বাঁচন(২৫)সহ কয়েকজন যুবকের সাথে মাদক ব্যবসার পাওনা টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটি, হাতা-হাতি, কিল ঘূষিতে মনির হোসেনকে মারধরের ঘটনা ঘটায়। এক পর্যায় মনির হোসেন পার্শবর্তী দিঘীতে ঝাপ দিয়ে আত্মরক্ষা করে। সংবাদ পেয়ে দেবীদ্বার থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মনির হোসেনকে উদ্ধার করে দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। স্থানীয়রা আরো জানান উভয় পক্ষের হামলাকারীদের অধিকাংশই মাদক সেবন ও মাদক বিক্রয়ের সাথে জড়িত।

দেবীদ্বার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত মনিরুল ইসলাম জানান, টিকা নিতে যেয়ে আমি প্রতিপক্ষের হাতে লাঞ্ছিত হই, তবে মদ বিক্রয়ের টাকা লেন-দেন নিয়ে কোন ঘটনা ছিলনা। ইউপি নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বদ্বী পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ হারুন-অর-রশিদ কয়েকজন সমর্থক নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আমার শারিরীক খোঁজ খবর নেন এবং তার সহযোগীতায় আমার স্ত্রী খাদিজা বেগম বাদী হয়ে ১১জনকে নামে এবং অজ্ঞাত ৮/১০জনকে অভিযুক্ত করে দেবীদ্বার থানায় একটি অভিযোগপত্র দাখিল করেন। 

পরে শুনতে পাই হারুনুর রশিদ রাতে বাড়ি ফেরার পথে বুড়িচং উপজেলার কংশনগর এলাকার ‘বেতুয়ারা’ আশুফকিরের মাজারের সামনে মসজিদ সংলগ্নের ফুলতলী সড়কের মাথায় পৌঁছার পর ৩টি মোটর সাইকেল ও একটি প্রাইভেট কারে আসা ৮/৯জন বিভিন্ন মরনাস্ত্র নিয়ে তাকে বহনকারী অটো রিক্সা থেকে নামিয়ে এনে গলায়, পেটে, উরুতে ছুরিকাঘাতে মারাত্মক জখম ও প্লাস দিয়ে হাতের বৃদ্ধাআঙ্গুলের মাথা কেটে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা নিয়ে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় মোঃ হারুনুর রশিদকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

এ ব্যপারে দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরিফুর রহমান বলেন, বরকামতা ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুনুর রশিদ এবং হাসেম মেম্বার’র সমর্থক মনির হোসেন টিকা নিতে আসলে প্রতিপক্ষের লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। ওই ঘটনায় হারুন ও হাসেম মেম্বারের সমর্থকরা ব্রাক্ষনখাড়ার মুকবল মেম্বারের উপর হামলা ও বাড়িঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটায়। রাতে খবর পাই বুড়িচং উপজেলার কংশনগর এলাকায় হারুনসহ কয়েকজনের উপর কে বা কারা হামলা করেছে। তাৎক্ষনিক বুড়িচং থানা পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। ওই ঘটনাটি যেহেতু বুড়িচং থানাধীন তাই তারাই পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেবে। মুকবল মেম্বারের উপর হামলার ঘটনায় তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে ইতিমধ্যে দেবীদ্বার থানায় একটি মামলা করেছেন।

এই বিভাগের আরো খবর