এই দিন

বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ৬ ১৪২৭   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৯৩

সুহেল ছাত্র অধিকার পরিষদের কেউ না: নুর

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০২০  

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন ছাত্র অধিকার পরিষদ ভেঙে গেছে। সংগঠনের শীর্ষ নেতা নুর, মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন ও ফারুক হোসেনকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে সংস্কারপন্থীরা নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করেছে। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নামে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

২২ সদস্য বিশিষ্ট নতুন এই আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেয়া হয়। নতুন আহবায়ক কমিটিতে আহবায়ক হয়েছেন এ পি এম সুহেল। তিনি আগে ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এদিকে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর এ পি এম সুহেল ছাত্র অধিকার পরিষদের কেউনা বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, সেখানে ছাত্র অধিকার পরিষদের কেউ নাই। এ পি এম সুহেল সে আমাদের ছাত্র অধিকার পরিষদের ছিল এক সময়। তাকে মে মাসে বহিষ্কার করা হয়েছে। আর এখান তাদের সাথে যারা আছে তাদের মধ্যে মিয়াজি ৩৫ আন্দোলনের নেতা, জালাল ছাত্রদলের নেতা, ইমমাইল সম্রাট ঐক্যবন্ধ ছাত্র সমাজের সাধারণ সম্পাদক। এখানে ছাত্র অধিকার পরিষদের কেউ নাই।

নুর বলেন, আমাদেরকে রাজনৈতিকভাবে কোনঠাসা করার জন্য, আমরা যেহেতু বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে গণ আন্দোলনের ডাক দিয়েছি, মানুষকে সংগঠিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি, সরকার আমাদের এই রাজনৈতিক অব্স্থানটাকে নষ্ট করার জন্য, আমাদের প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য, টাকা পয়সা খরচ করে তাদের কিছু অনুসারী দিয়ে এগুলো করাচ্ছে। এখানে ছাত্র অধিকার পরিষদের কেউ নাই।

এ বিষয়ে এ পি এম সুহেল বলেন, নুর তার জায়গা থেকে আমাকে বহিষ্কার করেছিলেন তার বিরুদ্ধে আমি স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তোলার পর। পরবর্তীতে সংঠনের অনেক সদস্য নুরের বহিষ্কারাদেশ মানেনি। তখনও আমি সংগঠনে ছিলাম। তিনি আমাকে চার তারিখে বহিষ্কার করেছিলেন। কিন্ত আমি ২২ তারিখ পর্যন্ত সংগঠনে ছিলাম। পরবর্তীতে ঝামেলা হলে আমি বলি আমি তোমাদের সাথে সংগঠনে থাকবে না। পরে আমি ২৩ তারিখে সরে এসেছি।

এই বিভাগের আরো খবর