শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১২০

যৌতুকের জন্য স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে নির্যাতন করলো স্বামীর পরিবার

মোঃ নাঈম শাহ্, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০২০  

নীলফামারীর সদর উপজেলায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন করে মাথা ন্যাড়া করে দেন স্বামীর পরিবার। বিচারের দাবীতে থানায় মামলা করেন ভূক্তভোগী। ঘটনাটি ঘটে নীলফামারী সদর পৌরসভার মার্কাজ মসজিদ পাড়ায়। রবিবার (২৬ জুলাই) নীলফামারী জেলা রিপোটার্স ইউনিটি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানায় নির্যাতিত স্ত্রী বর্ষা প্রামানিক। সংবাদ সম্মেলনে বর্ষা প্রামানিক জানায়, গত আড়াই বছর পূর্বে নীলফামারী সদর নটখানার আব্দুল হাকিমের মেয়ে বর্ষা প্রমানিকের সাথে মার্কাজ মসজিদ পাড়ার আহম্মেদ হোসেন রতনের ছেলে ফয়সাল আহম্মেদ ফাহিমের সহিত বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকে স্বামী সহ স্বামীর পরিবার তিন লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য প্রায়ই মারডাং সহ বিভিন্ন ভাবে শারিরীক ও মানষীক নির্যাতন করে আসছে।


আবারো ১৮ই জুলাই আমার উপড় যৌতুকের জন্য পরিকল্পিত ভাবে স্বামীর পরিবারের লোকজন নির্যাতন চালান। একপর্যায়ে আমাকে কয়েকজন জোরপূর্বক ধরে চুল কাটা মেশিন দ্বারা আমার মাথা ন্যাড়া করে দেন। ন্যাড়া করে দিয়ে আমাকে তিনদিন ঘড়ে বন্দি করে রাখেন। তারা আমার নির্যাতনের দায় এড়ানোর জন্য আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মারপিটের অভিযোগ দিয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন আমার স্বামী ফয়সাল আহম্মেদ ফাহিম।আমার নির্যাতনের বিষয়টি আমার পরিবার জানতে পেরে আমাকে তাদের হাত থেকে গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। আমি আমার স্বামীর পরিবারের সঠিক বিচারের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করি।

এই বিভাগের আরো খবর