মঙ্গলবার   ২১ মে ২০১৯   জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৬   ১৬ রমজান ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
বিএনপির মনোনয়ন পেলেন রুমিন ফারহানা ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের আন্দোলন স্থগিত অভিমান থেকে পদত্যাগের কথা বলেছিলাম: গোলাম রাব্বানী রবীন্দ্র সংগীতশিল্পী শাওনের আত্মহত্যা হাতে বালিশ নিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ কাজের গতি বাড়াতে মন্ত্রিসভায় পুনর্বিন্যাস : সেতুমন্ত্রী ইরান-যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধের আশঙ্কা, মধ্যপ্রাচ্যে আতঙ্ক ব্রাজিলে বন্দুক হামলায় ১১ জন নিহত বুথফেরত জরিপ বিশ্বাস করি না: মমতা বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের সহায়তা অব্যাহত থাকবে
৪৯৩

মাদারীপুরে ছাত্রলীগ নেতা খুনিদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবী

মাদারীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০১৯  

রুপা আক্তার। বয়স এখনও ২০। ৪ মাসের অন্ত:স্বত্তা। এরই মাঝে হারিয়েছে স্বামীকে। রুপার দাবী তার স্বামী মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি লিমন মজুমদারকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। খুনে সাথে রুপার ভাই  আসিফ জড়িত। জড়িতদের বিচারের দাবীতে মঙ্গলবার দুপুরে মাদারীপুর পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেছে লিমনে পরিবার। এসময় লিমনের সন্তান সম্ভবা স্ত্রী রুপা আক্তার কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন,‘আমার অনাগত সন্তানের ভবিষ্যৎ কি হবে? কে ওতে আদর করবে? আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। আমার স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে। খুনের সাথে অনেকেই জড়িত। এর আগে বিভিন্ন সময় লিমনকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। সেই কলরেকর্ডও আছে। এরপরও হত্যাকান্ডের ১০দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।’ এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন লিমনের বাবা বাবুল মজুমদার। তিনি বলেন, ‘ আমরা ১১জনের নাম উল্লেখ করে কোর্টে একটি মামরা করেছি। পুলিশ রহস্যজনক কারনে কাউকে আটক করতে পারেনি। তদন্ত কাজেও তাদের ধীর গতি। আমরা চাই সিআইডি তদন্ত করুক।’ মাদারীপুর সদর থানার ওসি কামরুল হাসান বলেন, ‘পুলিশ তদন্ত করছে। তদন্তের স্বার্থে সব কিছু বলা যাবে না। তবে খুনিরা পুলিশের নজরদারীতে আছে। 
উল্লেখ্য, শহরের একটি নির্মাণনাধীন ভবন থেকে গত ২৫ মার্চ মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি লিমন মজুমদারের লাশ উদ্ধার করা হয়।
 

এই বিভাগের আরো খবর