মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮   ২০ সফর ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৩৫০

দৌলতখানে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষাগত যোগ্যতা ও স্কুলের জমি

নোমান হাওলাদার

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

 ভোলার দৌলতখানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষাগত যোগ্যতা ও  স্কুলের জমি আত্মসাৎ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, উপজেলার ৪ নং দক্ষিণ চরশুভী জাতীয়করণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু তাহের ০১-০১-১৯৮৬ এইচ. এস. সি পাশ দেখিয়ে বিদ্যালয়ে যোগদান করেন।

পরবর্তীতে ০১-১১-২০১২ ইং তারিখে বি. এ. অনার্স এবং ১১-০৬-২০১৩ ইং তারিখে বি.এ শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট দেখিয়ে প্রধান শিক্ষকের পদে বহাল রয়েছেন। এদিকে বিদ্যালয়ের নামে ১২-১০-১৯৭২ সালে ১২৯৫ দলিলে ৭৫ শতাংশ জমি স্কুলের নামে সাবকাওলা থাকলেও প্রধান শিক্ষক মাত্র ৩২ শতাংশ জমি বিদ্যালয়ের নামে নামজারী করে বাকি ৪৩ শতাংশ জমি নিজ ভোগ দখলে রেখেছে।
 
এ বিষয় বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী শিক্ষক মাহে আলম পাটোয়ারীর এক লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ২-৩-২০২১ ইং তারিখ সহকারী কমিশনার শিক্ষা শাখা জেলা প্রশাসনের কার্যালয় ভোলা থেকে দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে  নির্দেশ দেওয়া হলে ঐ পত্রের অনুবলে নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে ২৯-০৩-২০২১ তারিখের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

পরবর্তীতে শিক্ষা কর্মকর্তা ঐ আদেশের বলে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তাকে বিষয়টি তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দেওয়ার আদেশ দেন। নির্দেশনা বলে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম অভিযোগ কারী মাহেল আলম পাটোয়ারী ও অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে ০৬-০৪-২০২১ ইং তারিখের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে তার কার্যালয় উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেন। এবিষয় প্রধান শিক্ষককের নিকটে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। সহকারী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে তদন্ত চলমান আছে ।

এই বিভাগের আরো খবর