রোববার   ১৪ এপ্রিল ২০২৪   চৈত্র ৩০ ১৪৩০   ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১১৬

শেয়ারবাজারে টানা দরপতন, আতঙ্কে বিনিয়োগকারীরা

অনলাইন ডেস্ক 

প্রকাশিত: ২৮ মার্চ ২০২৪  

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বুধবার শেয়ারের বড় দরপতন হয়েছে। এ দিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭২ পয়েন্ট বা সোয়া ১ শতাংশ কমে ৫ হাজার ৭৬৩ পয়েন্টে নেমে গেছে। এর আগের কর্মদিবসে গত সোমবার ডিএসইএক্স সূচকটি ৬৭ পয়েন্ট বা ১ শতাংশের বেশি কমে। এর আগে রবিবারও সূচকে বড় পতন ঘটে।


চলতি সপ্তাহের তিন কার্যদিবসে দরপতনের কারণে ডিএসইএক্স সূচক মোট ১৭৯ পয়েন্ট কমে প্রায় ৩৫ মাস আগের অবস্থানে ফিরে গেছে। সর্বশেষ ২০২১ সালের ১২ মে এই সূচক ৫ হাজার ৭৫০ পয়েন্ট ছিল।

অন্যদিকে শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচকও গতকাল বুধবার কমেছে ১২৫ পয়েন্ট বা পৌনে ১ শতাংশ। সেই সঙ্গে চট্টগ্রামের বাজারে লেনদেন নেমে এসেছে ১০ কোটি টাকার নিচে।


তবে ঢাকার বাজারে গতকাল লেনদেন বেড়ে দাঁড়ায় ৫৩৯ কোটি টাকা।
পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ‘সাধারণ বিনিয়োগকারীরা যাতে ভীত হয়ে শেয়ার বিক্রি না করেন, সে জন্য বিনিয়োগকারীদের আশ্বস্ত করার জন্য ব্রোকারেজ হাউস ও মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোকে অনুরোধ জানিয়েছি। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিনিয়োগে সক্রিয় করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আশা করছি, খুব শিগগির বাজার ঘুরে দাঁড়াবে।


একাধিক ব্রোকারেজ হাউস ও মার্চেন্ট ব্যাংকের শীর্ষ নির্বাহীরা জানান, টানা দরপতনে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা এখন আতঙ্কে রয়েছেন। তাদের অধিকাংশই নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ায় বাজারে ক্রেতাসংকট প্রকট হয়ে উঠেছে। সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে ফোর্সড সেল বা জোরপূর্বক বিক্রির প্রবণতা।

ঢাকার বাজারে গতকাল বুধবার দরপতনের শীর্ষে ছিল আইপিডিসি ফিন্যান্স। এদিন কম্পানিটির শেয়ারের দাম প্রায় আড়াই টাকা বা সোয়া ৯ শতাংশ কমেছে।


গত ১৫ কার্যদিবসে কম্পানিটির শেয়ারদর প্রায় ১০ টাকা কমেছে। একই রকম অবস্থা ঘটেছে ভালো মৌলভিত্তির বহুজাতিক ব্রিটিশ-আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কম্পানির (বিএটিবিসি)। 
গত ১৫ কার্যদিবসে এই কম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে ১১৬ টাকা। ৪ মার্চ থেকে কম্পানিটির শেয়ারের সর্বনিম্ন মূল্যস্তর বা ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করা হয়। এর পর থেকে কম্পানিটির শেয়ারের টানা দরপতন চলছে। তাতে গত দুই বছরের মধ্যে এটির শেয়ারের দাম সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে। এ ছাড়া গতকাল দরপতন হয়েছে রেনেটা, বেক্সিমকো ফার্মা, গ্রামীণফোন, পূবালী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক ও সিটি ব্যাংকের মতো ভালো প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ারের।

বিএসইসির সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, বাজারে খারাপ কম্পানির শেয়ার নিয়ে কারসাজির ঘটনা ঘটছে। কারসাজি বন্ধে নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে কঠোর হতে হবে। একই সঙ্গে সবার জন্য আইনের সমপ্রয়োগ ও যেকোনো সিদ্ধান্ত নিতে হবে স্বচ্ছতার সঙ্গে। তাহলে বিনিয়োগকারীরা বাজারের প্রতি আস্থাশীল হবেন। 

এই বিভাগের আরো খবর