বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯   ১২ মুহররম ১৪৪৪

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৩৭

ক্বাসিদাহ উদ্ভোধন মিরপুরে

তরুণ কণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২২  

ক্বাসিদাহ অর্থ- ছন্দের মাধ্যমে প্রিয়জনের প্রশংসা করা। প্রিয়জন বলতে যখন যে প্রেক্ষাপটে যিনি প্রিয়। যেমন ইবাদতের ক্ষেত্রে মহান রব হলেন প্রিয়, সুন্নত পালনের ক্ষেত্রে মহানবী হলেন প্রিয়, কখণও স্ত্রী হলেন প্রিয়, কখণও বাবা প্রিয়, কখণও মা প্রিয়, কখণও সৃষ্টির  গুণগান গাইতে সৃষ্টিকর্তা প্রিয়। অর্থাৎ যখন যে প্রেক্ষাপটে যিনি প্রিয়জন থাকেন তাঁর প্রশংসা ছন্দের মাধ্যমে প্রকাশ করাকেই ক্বাসিদাহ বলে। ক্বাসিদাহ ঠিক যে সময়ে যুব সমাজ অপসংস্কৃতির ভয়াল থাবায় নিমজ্জিত, ঠিক ঐ সময়ে বাংলাদেশে ইসলামিক সংস্কৃতি বিকাশের লক্ষে ̈ একদল যুব সমাজ নতুন করে আরেকটি ফ্লাটফর্ম গঠন করে ২৪ জুন মিরপুরস্থ কে-৭/এ, বর্ধিত পল্লবীতে “ক্বাসিদাহ” নামে প্রতিষ্ঠানটির এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্ভোধন করা হয়। 
অনুষ্ঠানটিতে দেশ বরেণ্য বেশ কয়েকজন নাশিদ শিল্পী, লেখক, গীতিকার, সুরকার, সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ারসহ বিভিন্ন কলা কুশলী অতিথি হয়ে উপস্থিত ছিলেন। অতিথিদেরকে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ হতে সন্মাননা  স্মারক μেষ্ট প্রদান করা হয়েছে। অতিথিগণ তাদের অনুভ‚তি প্রকাশ করতে গিয়ে প্রতিষ্ঠানটির সফলতা কামনা করেছেন এবং তাদের সম্পৃক্ত থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। বেশ কয়েকজন অতিথি সিলেটে বানভাসি মানুষদের সেবায় নিয়োজিত থাকায় অনুষ্ঠানটিতে যোগ দিতে পারেন নাই। তবে তারা ফোন কলের মাধ ̈মে তাদের একাত্বতা ঘোষণা করেছেন এবং সাধুবাদ জানিয়েছেন।
প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবদুল মান্নান বলেন, “ক্বাসিদাহ” তে শুধুমাত্র ইসলামিক গানের চর্চা-ই হবে না বরং ছোট শিক্ষার্থীদের কে পবিত্র কোরআন শিক্ষায় উদ্বোদ্দ ̈ এবং নীতি নৈতিকতা শিক্ষায় প্রতিষ্ঠানটি ভ‚মিকা পালন করবে। সমাজের বিভিন্ন প্রেক্ষাপট বিবেচনায় শর্ট ফিল্ম তৈরি করেও জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে ̈ “ক্বাসিদাহ” কাজ করবে। এতে করে সূদুর প্রসারে সমাজে একটি ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। কারণ মানুষ যদি নীতি নৈতিকতার প্রয়োজনীয়তাই নিজের উপলব্দিতে নিতে না পারেন তাহলে তার কাছে অনেক জগন ̈ কাজও  ̄^াভাবিক মনে হবে। তাই ছোট বাচ্চাদের কে নীতি নৈতিকতা শিক্ষা দেওয়া অনেক বেশি  ̧রুত্বপূর্ণ।
মানুষের মনের সাংস্কৃতিক খোরাক জোগানের মাধ ̈মে ইসলামিক সংস্কৃতি এক বিরাট বিপ্লব বয়ে আনতে পারে। ঐ লক্ষে ̈ “ক্বাসিদাহ” নিরলস ভাবে কাজ করে যাবে।
“ক্বাসিদাহ”-তে যারা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, তারা হলেন- মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, আবদুল আজিজ, রায়হান সিদ্দিকী, মেহরাব হোসেন, আবীর মোহাম্মদ রোশান, আরিফিন সাঈদ, ইয়াকুব রহমান, তাহমিদ এইচ তামিম এবং মারূফ মোহাম্মদ জিসান প্রমূখ।