সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯   ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৩১

চলছে ঢাকা জেলা বিএনপির সম্মেলন, দলের সিদ্ধান্ত মানবেন প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৩০ অক্টোবর ২০২২  

আনন্দ-উচ্ছ্বাসের মধ্য দিয়ে চলছে ঢাকা জেলা বিএনপির সম্মেলন। রোববার (৩০ অক্টোবর) দুপুর ২টা থেকে এ সম্মেলন শুরু হলেও সকালেই বিভিন্ন থানা-উপজেলা থেকে কাউন্সিলর ও নেতাকর্মীরা উপস্থিত হতে থাকেন।

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার কলাপোপা মাঠে হচ্ছে সম্মেলন। তবে আজকের সম্মেলনে নতুন নেতৃত্ব ঘোষণা করা হচ্ছে না। নেতৃত্ব নির্বাচনের দায়িত্ব দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ওপর ন্যস্ত করেছেন জেলার এক হাজার ১০ জন কাউন্সিলর। তিনি সবার সঙ্গে কথা বলে এবং তৃণমূল পর্যায়ে খোঁজ নিয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করবেন।

এর আগে সাবেক সংসদ সদস্য দেওয়ান মো. সালাউদ্দিন বাবুকে সভাপতি ও খন্দকার আবু আশফাককে সাধারণ সম্পাদক করে ৪৯ সদস্যের ঢাকা জেলা বিএনপির আংশিক কমিটি করা হয়েছিল। মেয়াদ শেষের এক বছর পর ২০১৯ সালের ২৪ মার্চ পূর্ণাঙ্গ করা হয় এই কমিটি। এর সদস্য সংখ্যা ২৬৬।

পরে সম্মেলনের মাধ্যমে জেলার ১০টি সাংগঠনিক ইউনিট কমিটি করেন দায়িত্বশীল নেতারা। এসব কমিটি গঠনে নানা অভিযোগ থাকলেও এবার রাগ-অভিমান ভুলে সবপক্ষ কাউন্সিলের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন বলে নেতারা জানান।

এদিকে এরইমধ্যে জেলা বিএনপির পদ প্রত্যাশীরাও দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। এরমধ্যে রয়েছেন বর্তমান সভাপতি দেওয়ান সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক। তারা ঢাকা জেলা বিএনপির শীর্ষপদ পেতে করছেন লবিং।

এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে তমিজ উদ্দিন, ব্যারিস্টার ইরফান ইবনে আমান অমি, জেলা যুবদলের সভাপতি রেজাউল কবির পল, সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন ফেরদৌস মুরাদ, খোরশেদ আলম, নাজিম উদ্দিন (ভিপি নাজিম) লবিং করছেন। 

এর বাইরে নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোচনায় আছেন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী।

এসব প্রার্থীরা দলের হাইকমান্ডের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন। তারা রাজনৈতিক জীবনে তাদের ত্যাগ-শ্রম আর সাংগঠনিক তৎপরতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরছেন।

জেলা যুবদলের সভাপতি রেজাউল কবির পল জানান, দল যখন যেখানে তাকে দায়িত্ব দিয়েছে সেখানে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করেছেন। সামনেও করবেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের যে কোনো সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন তিনি।

জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক খোরশেদ আলম জানান, তিনি ছাত্র রাজনীতি থেকে বিএনপির সঙ্গে সম্পৃক্ত। দলের হাইকমান্ড তাকে যেখানে দায়িত্ব দেবেন সেখানে কাজ করতে প্রস্তুত।

এই বিভাগের আরো খবর