শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ১৬ ১৪২৯   ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৫২

নানা জটিলতায় আটকে আছে ভৈরব সেতুর কাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২২  

নানা জটিলতায় বন্ধ হয়ে গেছে খুলনার ভৈরব সেতুর নির্মাণকাজ। চলতি বছরের নভেম্বরে সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও এ পর্যন্ত কাজ হয়েছে মাত্র ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। দেড় বছরে কাজের অগ্রগতি বলতে, ৩০৮টির মধ্যে মাত্র ৩২টি পাইল নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। কেডিএর অনাপত্তিপত্র পেতে এবং জমি অধিগ্রহণে দেরিসহ নানা কারণে কাজে গতি নেই বলে জানিয়েছে সড়ক বিভাগ।

ভৈরব নদীর তীরে পড়ে আছে হাইড্রোলিক রিক, কংক্রিট পাম্প, বেচিং প্লান্ট, হুইল লোডারসহ সেতু নির্মাণের জন্য ব্যবহৃত নানা যন্ত্রপাতি।

 
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ভৈরব নদীর উপর সেতু নির্মাণের প্রকল্প একনেকে অনুমোদন পায়। ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে কার্যাদেশ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান, যা শেষ হওয়ার কথা চলতি বছর নভেম্বরে। তবে গত দেড় বছরে কাজের অগ্রগতি বলতে কয়েকটিি পাইল নির্মাণ।
 

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওয়াহিদ কনস্ট্রাকশনের কোয়ালিটি সার্ভে ইঞ্জিনিয়ার মো. সামিউল ইসলাম জানায়, ভূমি অধিগ্রহণ না হওয়ায় কাজ বন্ধ করে দিতে হয়েছে।
 
কেডিএর অনাপত্তিপত্রে পেতে সময় লাগায় এবং রেলওয়ের সাথে জমি হস্তান্তর সম্পন্ন না হওয়ায় জমি অধিগ্রহণে সময় লাগছে বলে দাবি খুলনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আনিসুজ্জামান মাসুদের।
আর খুলনা জেলা প্রশাসক মনিরজ্জামান তালুকদার আশ্বাস দিয়েছেন, দ্রুত জমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন করে সেতুর কাজ চলমান রাখা হবে।
খুলনা ভৈরব সেতুর মোট দৈর্ঘ্য ১ দশমিক ৩১৬ কিলোমিটার এবং সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬১৭ কোটি ৫৩ লাখ টাকা।

এই বিভাগের আরো খবর