বৃহস্পতিবার   ১৮ জুলাই ২০২৪   শ্রাবণ ২ ১৪৩১   ১১ মুহররম ১৪৪৬

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৫৭

সাত খাবারের সাথে কখনো দুধ পান করবেন না

শাহরিয়ার শ্রাবণ

প্রকাশিত: ১৫ আগস্ট ২০২৩  

শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য খাদ্যতালিকায় পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার রাখা হয়। দুধ স্বাস্থ্যকর খাদ্যের মধ্যে একটি। এটি প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন এ, বি-৬, ডি, কে, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম, আয়োডিন সমৃদ্ধ৷ তবে দুধ পান করার সময় একটু সতর্ক থাকুন। কিছু খাবার রয়েছে যা দুধের সাথে মিশে যেতে পারে না। হজমের সমস্যা হয়৷ এরকম সাতটি খাবার স্বাস্থ্যের ভালোর জন্য দুধের সাথে খাওয়া থেকে এড়ানো উচিত। 

দই

আয়ুর্বেদ অনুসারে, দুধ এবং দই একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়। দুধের সাথে দই খাওয়া বা দুধের পর দই, উভয়ই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এতে পেটের সমস্যা হতে পারে। আপনার পেটও খারাপ করতে পারে।

সাইট্রাস ফল

দুধ এবং সাইট্রাস ফল একসাথে খাওয়া হয় না। এই দুই খাবার একসাথে খেলে বমি বা পেটে ব্যথা হতে পারে। ফল খাওয়ার অন্তত দুই ঘন্টা পর দুধ পান করুন।

গুড়

অনেকেই চিনির বদলে দুধে গুড় যোগ করেন। আয়ুর্বেদ অনুযায়ী, দুধের সাথে গুড় মিশিয়ে খেলে পেটের জন্য ক্ষতিকারক। এই কারণে পেট খারাপ হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে।

মাছ

মাছ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। তবে দুধ ও মাছ কখনই একসঙ্গে খাওয়া উচিত নয়। এতে খাদ্যে বিষক্রিয়া হতে পারে। পেটে ব্যথা বা হজমের সমস্যায় পড়তে পারেন। এ ছাড়াও, ত্বক সম্পর্কিত সমস্যাও হতে পারে।

ঝাল খাবার

মশলাযুক্ত খাবার পেটে অ্যাসিড উৎপাদন করে। তাই দুধের সাথে খেলে হজমের সমস্যা হতে পারে। ভারী মশলাযুক্ত খাবার দুধের সাথে খাওয়া হলে অ্যাসিড রিফ্লাক্স বা বদহজমের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

লবণাক্ত স্ন্যাকস

চিপসের মতো লবণাক্ত স্ন্যাকস আপনাকে তৃষ্ণার্ত করে তুলতে পারে। আর এ সময় দুধ পান করলে মারাত্নক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। এ সব স্ন্যাকসে থাকা উচ্চ মাত্রা লবণের উপাদান শরীরের ইলেক্ট্রোলাইট ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে। হজমে সমস্যা সৃষ্টি করে।

প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার

দুধ প্রোটিনের একটি ভাল উৎস। তবে অন্যান্য প্রোটিনযুক্ত খাবারের সাথে এটি খেতে যাবেন না। ডিম, মাংস বা মটরশুঁটির সাথে দুধ খেলে পাচনতন্ত্রে সমস্যা হতে পারে। একাধিক প্রোটিন খাবারের সংমিশ্রণ হজম করা কঠিন হতে পারে।