বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭   ১২ সফর ১৪৪২

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৬৭

প্রেমিককে পিটিয়ে বাস থেকে ফেলে হত্যা!

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ঢাকার সাভার উপজেলার কবিরপুর এলাকায় হাবিবুল বাশার জয় নামের কলেজপড়ুয়া এক প্রেমিককে পিটিয়ে বাস থেকে ফেলে দেয় স্কুলছাত্রী প্রেমিকা ও তার সহযোগীরা। গত ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে ওই প্রেমিকের মৃত্যু হয়।

জানা যায়, প্রেমের সম্পর্কে ফাটল সৃষ্টি হওয়ায় প্রেমিকা ক্ষুব্ধ হয়ে প্রেমিককে মারধর করে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মো. জুলহাস (৩৮) বাদী হয়ে প্রেমিকা নিলুফা ইয়াসমিন ঝুমুর, তার প্রধান সহযোগী মো. সজীবসহ অজ্ঞাতনামা আরো তিন-চারজনের বিরুদ্ধে কাশিমপুর থানায় মামলা করেন।

জানা যায়, আশুলিয়ার আলহাজ আবদুল মান্নান ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী ছাত্র মো. হাবিবুল বাশার জয়ের (২০) সঙ্গে কবিরপুর অঞ্জনা মডেল হাইস্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী নিলুফা ইয়াসমিন ঝুমুরের প্রায় দুই বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিছুদিন ধরে উভয়ের সম্পর্কের অবনতি ঘটলে ঝুমুর প্রেমিক জয়ের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার শুরু করে। একপর্যায়ে গত ১১ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টার দিকে ঝুমুর কৌশলে জয়কে কবিরপুর বাসস্ট্যান্ডে ডেকে নেয়।

পরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে ঝুমুরের সহযোগী কালিয়াকৈর উপজেলার  জাঙ্গালিয়াপাড়ার সজীব হোসেন (২৪) তিন-চারজন সহযোগীসহ ঠিকানা পরিবহনের একটি বাস নিয়ে আসে এবং কৌশলে জয়কে বাসে উঠিয়ে নবীনগরের দিকে যাত্রা করে। পথে জয়কে মারধর করে এবং আনুমানিক ১২টা ২০ মিনিটের দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কাশিমপুর থানাধীন তেঁতুইবাড়ী এলাকায় প্রেমিকা ঝুমুর, সজীব ও অজ্ঞাতনামা তিন-চারজন মিলে জয়কে বাসের জানালা দিয়ে ফেলে দেয়। এরপর তারা বাস থামিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। এতে জয়ের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয় এবং মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। পরে স্থানীয় লোকজন ধরাধরি করে তাঁকে নিকটস্থ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি করে।

অবস্থা গুরুতর দেখে জয়কে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয় এবং দ্রুত তাঁর মস্তিষ্কের অপারেশন করা হয়। গতকাল দিবাগত রাত ১টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় জয়ের মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে জয়ের স্বজনরা কাশিমপুর থানা পুলিশকে জানালে তারা হাসপাতাল পরিদর্শন করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে এবং লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে আসামিদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর