শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
২৪ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ দু’চার দিনের মধ্যে ওষুধ আসছে : কাদের ‘ডেঙ্গু নিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সরকার ব্যর্থ’ ক্ষমা চাইলেন মেয়র আতিকুল রাজধানীর ২৪ হাটে পশু বেচাকেনা শুরু ডেঙ্গু প্রতিরোধে ৫৩ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্ধ ঢাবির ৬৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার দেশের চতূর্থ মানব রোবট তৈরি করলো কুবি শিক্ষার্থীরা
২৮০

সংরক্ষিত মহিলা আসনে

লাকসামের রিনা আলম আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০১৯  

লাকসামের রিনা আলম আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

লাকসামের রিনা আলম আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

বৃহত্তর কুমিল্লার রাজনৈতিক পরিমন্ডলে এক সময়ের আলোচিত ব্যাক্তিত্ব বৃহত্তর লাকসাম উপজেলা (যা বর্তমানে চারটি উপজেলায় বিভক্ত) আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক কোষাদক্ষ মরহুম খোরশেদ আলম সুরুজের বড় মেয়ে ফেরদৌসী আলম রিনা কুমিল্লা দক্ষিণ আওয়ামীলীগের সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচন করতে কেন্দ্রীয় দলীয় অফিস থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করায় এলাকার রাজনৈতিক পরিমন্ডলে বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে।


রিনা আলম রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে সংরক্ষিত মহিলা আসনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী উল্লেখ করে বলেন, আমার পিতা রাজনৈতিক ভাবে দীর্ঘদিন যাবত আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে থেকে এলাকার অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে ন্যায় বিচার এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। ফলে এ অঞ্চলের সাধারণ মানুষ আমাদের পরিবারকে ভালোবাসার বদৌলতে দেশের সাম্প্রতিক উন্নয়নে সৎ ও নিষ্ঠার সাথে আরো এগিয়ে যেতে পারবো।


তিনি শিশু-কিশোর থেকেই স্বাধীনতার অন্নদা মহাপুরুষ জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে লালন ও ধারণ করে পারবিারিকভাবে রাজনৈতিক শিক্ষায় বেড়ে উঠেন। ৮০দশকে তিনি কলেজ জীবনে ছাত্রলীগের শীর্ষ নেত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানেও সক্রিয়ভাবে পরিবার ও স্বজনদের পাশাপাশি একজন আওয়ামীলীগের কর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন।


রিনা আলম বলেন, আমার বাবা এ অঞ্চলের সার্বিক কল্যাণে কৈশর জীবন থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আ’লীগের রাজনীতি করে গেছেন। অথচ এ আ’লীগের রাজনীতি করতে গিয়ে তার পরিবারকে নানাহ ভাবে তৎকালিন পেশীশক্তির হাতে অনেক নির্যাতনসহ ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হয়েছে। নানাহ লোভ-লালসা ও মন্ত্রীত্বের অফার দিয়েও তাকে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে স্বাধীনতার পরবর্তিকালীন একাধিক সরকার সরাতে পারেনী।

আমার আস্তা ও বিশ্বাস গণতন্ত্রের মানষকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার পিতার রাজনৈতিক দায়িত্বশীল ভূমিকা এবং আ’লীগের প্রতি পরিবারের ত্যাগের কথা পর্যবেক্ষণ করে আমাকে এ আসনে সংরক্ষিত মহিলা এমপি হিসেবে দলীয় মনোনয়ন দিতে বিবেচনা করবেন।
তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা এ আসনে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমার পিতার মতো জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠা ও আওয়ামীলীগের একজন কর্মী হয়ে সরকারের উন্নয়ন ধারাবাহিকতায় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নিষ্ঠা এবং সততার সাথে কাজ করবো।


লাকসাম প্রেসক্লাবের সভাপতি ও পৌর আ’লীগের সভাপতি এবং দৌলতগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাবারক উল্লাহ কায়েস বলেন, পুরো দেশে বর্তমানে আওয়ামীলীগের যে কয়টি ত্যাগি পরিবার আছে এবং যাদের ত্যাগের ফসল হিসেবে আওয়ামীলীগ আজ বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসছে। উল্লেখিত: ত্যাগী পরিবারগুলোর মধ্যে রিনা আলমের পরিবারও একটি। রিনা আলমের পিতা মরহুম খোরশেদ আলম সুরুজ ভাই আওয়ামীলীগ প্রতিষ্ঠা থেকে শুরু করে মৃত্যু আগ পর্যন্ত এ অঞ্চলে গণতান্ত্রিক পরিবেশ, সুশাসন ও সামাজিকভাবে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করে গেছেন।

স্থানীয় পরিবেশবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করতে গিয়ে রিনা আলমের পরিবার বহু নির্যাতনসহ অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। এখন সময় এসেছে রিনা আলমের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটিকে মূল্যায়ন করার। রিনা আলমের পিতা মরহুম সুরুজ ভাই ব্যাক্তি জিবনে কোন দিন রাজনৈতিকভাবে কিংবা ক্ষমতার দাপটে চাওয়া পাওয়ার হিসাব করেনী। রিনা আলমের স্বামী ডাঃ খোরশেদ আলম লালমাই উপজেলার শাকেরা গ্রাামের সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান।

কুমিল্লার চিকিৎসা সেবায় সাধারণ মানুষের প্রতি যতেষ্ঠ অবদান রাখছেন। এমনকি তার চাচারাও পৃথক পৃথকভাবে শিল্প পরিবারের মালিক। সামাজিকভাবে এলাকায় তাদের রয়েছে অনেক সুখ্যাতি। তাদের চিত্ত-বিত্ত বৈভবের অভাব নেই। আমরা আশাকরি জননেত্রী শেখ হাসিনা নির্যাতিত ও ত্যাগী পরিবারের সন্তান হিসেবে আওয়ামীলীগের সংরক্ষিত মহিলা আসনে রিনা আলমকে মূল্যায়ন করবেন।

এই বিভাগের আরো খবর