শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
২৪ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ দু’চার দিনের মধ্যে ওষুধ আসছে : কাদের ‘ডেঙ্গু নিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সরকার ব্যর্থ’ ক্ষমা চাইলেন মেয়র আতিকুল রাজধানীর ২৪ হাটে পশু বেচাকেনা শুরু ডেঙ্গু প্রতিরোধে ৫৩ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্ধ ঢাবির ৬৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার দেশের চতূর্থ মানব রোবট তৈরি করলো কুবি শিক্ষার্থীরা
৬১০

গাছের সাথে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন

জামালপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৭ জুন ২০১৯  

জামালপুরের মাদারগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তারকে (২০) গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে বৃহস্পতিবার ভোরে গৃহবধূর স্বামী মাজেম ফকির, শশুর টগর ফকির, ভাসুর শাহজাহান ও তার স্ত্রী ছানোয়ারাকে গ্রেপ্তার করেছে মাদারগঞ্জ থানা পুলিশ।

সহকারী পুলিশ সুপার (মাদারগঞ্জ সার্কেল) সামিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পৌর এলাকার চর বওলা গ্রামের দুদু প্রামানিকের মেয়ে ইয়াসমিন আক্তারের সাথে পশ্চিম বালিজুড়ি গ্রামের টগর ফকিরের ছেলে মাজম ফকিরের সাথে বিয়ে হয় ৫ বছর আগে। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তারকে দীর্ঘদিন ধরে শাররিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল তারা। গত বৃহস্পতিবার গৃহবধূ ইয়াছমিনকে গাছে বেঁধে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করে স্বামী মাজম ফকিরসহ শশুর বাড়ীর লোকজন।

গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে নির্যাতিতা গৃহবধূ ইয়াছমিন বাদী হয়ে মাদারগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে বৃহস্পতিবার ভোরে অভিযুক্ত ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদেরকে জামালপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

নির্যাতনের শিকার ইয়াছমিন মাদারগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর