শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১ ১৪৩১   ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সৌদি আরবে নতুন ইতিহাস গড়তে চান নেইমার

তরুণ কণ্ঠ রিপোর্ট

প্রকাশিত : ০৩:৩২ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০২৩ বুধবার

বিশ্বাস-অবিশ্বাসের দোলাচল কাটিয়ে অবশেষে পিএসজি ছেড়ে সৌদি আরবের ক্লাব আল হিলালে পাড়ি জমিয়েছেন নেইমার। এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে ফুটবলবিশ্বে।

বিশ্বাস-অবিশ্বাসের দোলাচল কাটিয়ে অবশেষে পিএসজি ছেড়ে সৌদি আরবের ক্লাব আল হিলালে পাড়ি জমিয়েছেন নেইমার। এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে ফুটবলবিশ্বে।

কারণ মাত্র ৩১ বছর বয়সে ইউরোপের শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলকে বিদায় জানানোর বিষয়টি তার ভক্ত-সমর্থকদের অনেকেই মানতে পারছেন না। তাদের মতে, শুধু টাকার জন্যই সৌদি আরবে গেছেন তিনি।
কিন্তু নেইমার এসব সমালোচনাকে পাত্তা দিচ্ছেন না। তার দাবি, তিনি সৌদি আরবের যাচ্ছেন নতুন ইতিহাস গড়তে। এরইমধ্যে এশিয়ার সবচেয়ে সফল ক্লাব আল হিলালের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তি স্বাক্ষর করে ফেলেছেন এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। বিবিসি দাবি, দুই মৌসুমের এই চুক্তির আর্থিক মূল্য ৯ কোটি ইউরো। সঙ্গে থাকছে বোনাসও। সৌদিতে বছরে তিনি আয় করবেন ১৫ কোটি ইউরো, যা পিএসজির চেয়ে প্রায় ছয় গুণ বেশি।

পিএসজির নতুন কোচ লুইস এনরিকের পরিকল্পনায় না থাকার ব্যাপারটি নিশ্চিত হওয়ার পর থেকেই নতুন ক্লাবের সন্ধানে ছিলেন নেইমার। আসরে নেমেছিল বার্সেলোনার মতো ক্লাবও। কিন্তু নেইমার পছন্দ করেছেন আল হিলালের প্রস্তাব। দুই পক্ষ চুক্তিতে উপনীত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে খবরটি জানিয়ে নিজেদের ভেরিফাইড অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করেছে আল হিলাল। ক্যাপশনে নেইমারের বক্তব্যে লেখা হয়েছে, ‘আমি এখন সৌদি আরবে, আমি হিলালি। ’

সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ নেইমার নিজেও মুখ খুলেছেন। তিনি বলেছেন, 'আমি ইউরোপে অনেক কিছু অর্জন করেছি এবং দারুণ কিছু মুহূর্ত উপভোগ করেছি। কিন্তু আমার সবসময় লক্ষ্য ছিল বৈশ্বিক খেলোয়াড় হওয়া এবং নতুন নতুন জায়গায় নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করা। আমি ক্রীড়াক্ষেত্রে নতুন ইতিহাস গড়তেই সৌদিতে যাচ্ছি এবং সৌদি প্রো লিগে এখন অনেক শক্তিশালী এবং অনেক দারুণ খেলোয়াড় সেখানে খেলছে। '

২০১৭ সালে রেকর্ড ট্রান্সফার ফি ২২ কোটি ইউরোতে নেইমারকে বার্সেলোনা থেকে নিয়ে এসেছিল পিএসজি। তবে এই ছয় বছরে ইনজুরি আর মাঠের বাইরের বিতর্ক মিলিয়ে ক্লাবের প্রত্যাশা তিনি পূরণ করতে পারেননি। সমর্থকদের সঙ্গেও তার সম্পর্কের অবনতি হয়েছিল।  

প্যারিসের ক্লাবটির জার্সিতে ১৭৩ ম্যাচ খেলেছেন নেইমার। এসময় পাঁচটি লিগ ওয়ান সহ জিতেছেন ১৩টি ট্রফি। কিন্তু পিএসজির সবচেয়ে আরাধ্য চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে পারেননি তিনি। সব মিলিয়ে পিএসজির জয়ে নেইমারের গোল ১১৮টি। শেষ তিনটি ট্রান্সফার উইন্ডোতেই এই ব্রাজিলিয়ানকে বিক্রি করতে চাইছিল ফ্রান্সের ক্লাবটি। আল হিলালের প্রস্তাব পেয়ে তাই তারা সহজেই গ্রহণ করেছে।

নেইমারকে দলে ভিড়িয়ে আনন্দে ভাসছে আল হিলাল ক্লাবের সমর্থক ও কর্মকর্তারা। ক্লাবের চেয়ারম্যান ফাহাদ বিন সাদ নেইমারকে 'গ্লোবাল আইকন' হিসেবে অভিহিত করেছেন। ক্লাবের সমর্থকরাও তাকে নিয়ে উৎফুল্ল এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাকে নিয়ে উল্লাস প্রকাশ করছেন।