শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪   আষাঢ় ১ ১৪৩১   ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

তারাবিহ নামাজ চলাকালে ইমামসহ ১৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত : ০২:৫৪ পিএম, ২৮ মার্চ ২০২৩ মঙ্গলবার

গুলশানে তারাবিহ নামাজ থেকে তিনজন হাফেজ ও মুসল্লিসহ ১৭জনকে আটক করেছে গুলশান থানা পুলিশ। সোমবার (২৭ মার্চ) রাজধানীর শাহজাদপুরের সুবাস্তু মার্কেট সংলগ্ন ইসলামিক এন্টারপ্রাইজ (কুরআন শিক্ষা কেন্দ্র) থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে তিনজন ইমাম রয়েছেন। হাফেজ আব্দুল আজিজ(১৭), হাফেজ মুসফিকুর রহমান(১৬), হাফেজ জাকারিয়া(১৬) ইসলামিক এন্টারপ্রাইজ বা কুরআন শিক্ষা কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে স্থানীয় বাসিন্দারা পরিচালনা করে আসছেন। এখানে বয়স্কদের কুরআন শিক্ষা দেয়া হয়। প্রতি বছর পবিত্র রমজান মাসে পুরুষ ও নারীদের তারাবীহ নামাজ আদায় করে থাকেন। নিয়মিত কিয়ামুল লাইল হয়ে থাকে। এছাড়া বয়স্করা সহিহ কোরআন শিক্ষা ক্লাস করে থাকেন।ইসলামিক সেন্টারটিতে  কোরআন, হাদীস ও নামাজ শিক্ষা বই সহ বিভিন্ন মাসয়ালা মাসায়েলের বইও বিক্রি করা হয়। এলাকার সর্বস্তরের মানুষ এই কেন্দ্রের সাথে সম্পৃক্ত। প্রতিষ্ঠানটির সহকারী পরিচালক আ. মোতালেব মঈন বলেন, পুলিশ অন্যায়ভাবে বিনা কারণে আটক করেছে।মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ট দেশের নাগরিকদের ধর্মীয় ইবাদাত বন্দেগি করা অবস্থায় আটক করে ধর্মীয় স্বাধীনতায় আঘাত হেনেছে। পবিত্র রমজান মাসে মুসল্লি ও ইমামকে আটক করে ইসরাইলী বাহিনীর মতো বর্বরতার পরিচয় দিয়েছে।গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন, নাশকতার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়েছে।এদিকে আটককৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের রিমান্ড চাইবে পুলিশ।