মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২০ ১৪২৯   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

পুলিশ পরিচয়ে মোবাইল-মানিব্যাগ ছিনতাই, গ্রেফতার ১

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত : ০৭:০০ পিএম, ১২ মে ২০২২ বৃহস্পতিবার

পুলিশ পরিচয়ে মোবাইল-মানিব্যাগ ছিনতাই, গ্রেফতার ১

আটক মোহাম্মদ মামুন
রাজধানীর খিলগাঁওয়ে ছিনতাই করে পালানোর সময় একজনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার নাম মোহাম্মদ মামুন (৩৪)। তিনি সাবেক সেনা সদস্য। স্ত্রীর অভিযোগে ২০১৮ সালে তাকে স্বেচ্ছায় অবসরে পাঠায় সেনাবাহিনী।

বুধবার (১১ মে) দিবাগত রাত তিনটার দিকে খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নিচে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। পালানোর সময় পুলিশ ধাওয়া করে মামুনকে আটক করে। তার বিরুদ্ধে খিলগাঁও থানায় একটি মামলা হয়েছে, সেই মামলায় একদিনের রিমান্ড নিয়েছে পুলিশ।


খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফারুকুল আলম জাগো নিউজকে নিশ্চিত করে বলেন, শাওন নামের একজন ইন্টারনেট কর্মচারী সংযোগ মেরামতের জন্য রাত তিনটার দিকে রিকশাযোগে যাচ্ছিলেন। খিলগাঁও ফ্লাইওভারের ঢালে একটি মোটরসাইকেলে করে আসা দুজন ব্যক্তি নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে তার গতিরোধ করে মোবাইল মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়।

মোটরসাইকেলে থাকা দুজন পালিয়ে যাওয়ার সময় ভুক্তভোগী যুবক কাছাকাছি খিদমাহ হাসপাতালের পাশে থাকা পুলিশ সদস্যদের জানায়। ডিউটিতে থাকা পুলিশ সদস্যরা ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়া মোটরসাইকেলটিকে ধাওয়া করে। মোটরসাইকেলের পেছনে থাকা ব্যক্তিকে ধরতে সক্ষম হয় কিন্তু যিনি চালাচ্ছিলেন তিনি মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যান।

ওসি বলেন, যাকে আমরা হাতেনাতে ধরেছি তার নাম মোহাম্মদ মামুন। তিনি সেনাবাহিনীতে চালক হিসেবে চাকরি করতেন বলে জানিয়েছেন। ২০১৮ সালে তার স্ত্রীর করার অভিযোগে সেনাবাহিনীতে থেকে মামুনকে স্বেচ্ছায় অবসরে পাঠানো হয়। তবে তিনি সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন কি না এ বিষয়ে যাচাই করা হবে।

ওসি ফারুকুল আলম বলেন, মামুনকে আটক করার পর তার কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া মোবাইল ও মানিব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে। ভুক্তভোগী শাওন বাদী হয়ে খিলগাঁও থানায় একটি মামলা করেছেন। সেই মামলায় মামুনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। আদালত তাকে একদিনের রিমান্ড দেয়েছেন।