মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২০ ১৪২৯   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

জমানো টাকা ফেরতের দাবিতে আজও থানার সামনে ভুক্তভোগীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত : ০৩:৩৫ পিএম, ১২ মে ২০২২ বৃহস্পতিবার

গ্রিন বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ নামের কথিত একটি সমবায় সমিতির বিরুদ্ধে রাজধানীতে পাঁচ হাজার গ্রাহকের প্রায় ৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১২ মে) দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করেছে ভুক্তভোগীরা।

এর আগে গত মঙ্গলবার রাতে গ্রিন বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লি. এর মালিককে আলাউদ্দিন হোসেনকে গ্রেফতার করেছে রামপুরা থানা পুলিশ। পরে বুধবার পাওনা টাকা ফেরত পাওয়ার দাবিতে থানার সামনে বিক্ষোভ করে ভুক্তভোগীরা। এরই ধারাবাহিকতায় আজও বিক্ষোভ করছেন তারা।


বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকাল ১১টায় থানার সামনে ভুক্তভোগীরা অবস্থান নেয়। বিক্ষোভের কথা নিশ্চিত করেন রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, মূল অভিযুক্তকে আমরা আটক করে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। ভুক্তভোগীরা যেন উপকৃত হয়, এজন্য আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। ভুক্তভোগীদের অধিকাংশই গার্মেন্টসকর্মী, রিকশাচালক ও গৃহকর্মী। বেশ কয়েকজন তৃতীয় লিঙ্গেরও রয়েছেন। তারা অনেক কিছু বোঝেন না। এ কারণে তারা কিছু না বুঝেই থানার সামনে এসে আজ সকাল ১১টা থেকে ৫০০-৭০০ জন ভুক্তভোগী দাঁড়িয়েছেন।

ওসি বলেন, ভুক্তভোগীদের আমরা বোঝানোর চেষ্টা করছি। কার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে তা আমরা একটি তালিকা করছি। এ বিষয়ে অনেকটা এগিয়েছি। তবে প্রকৃতপক্ষে কতজন লোক ক্ষতিগ্রস্ত সেই তালিকা পাওয়া যাচ্ছে না। কেউ বলে ভুক্তভোগী সংখ্যা ৪ হাজার আবার কেউ বলে ৫ হাজার। আর টাকার পরিমাণ কেউ বলে ৩০ কোটি, আবার কেউ বলে ৭০ কোটি, আবার কেউ বলে ১০০ কোটি। আসলে কত টাকা আত্মসাৎ করেছে তার সঠিক তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি।

এদিকে বিক্ষোভকারী গ্রাহকরা জানান, মঙ্গলবার রাতেই প্রায় ৫ হাজার গ্রাহকের ৩০ থেকে ৪০ কোটি টাকা আত্মসাত করেছেন গ্রিন বার্ড মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লি. এর মালিক আলাউদ্দিন হোসেন। গ্রাহকদের অধিকাংশই নিম্নবিত্ত। দীর্ঘদিন ধরে লভ্যাংশের লোভে টাকা নিয়ে আর ফেরত দিচ্ছেন না।