মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২০ ১৪২৯   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

জমি নিয়ে বিরোধে খুন হন বাবলু

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত : ০৩:৪৬ পিএম, ১০ মে ২০২২ মঙ্গলবার

জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হন খুলনার তেরখাদা উপজেলার আদালতপুর গ্রামের বাবলু শেখ (৫০)। টেঁটা, বল্লম, রামদা, সড়কি ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাবলু শেখের বাড়িতে প্রবেশ করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় প্রতিপক্ষের দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে বাবলু শেখের মৃত্যু হয়। 
এরপর এ ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। একপর্যায়ে সোমবার (৯ মে) রাতে ঢাকার আশুলিয়া থানার জিরাবো এলাকা থেকে আসামি মুকুল শেখকে (৩৭) গ্রেফতার করে সিআইডি।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডির এলআইসি শাখার বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর।

মুক্তা ধর বলেন, গ্রেফতার মুকুল শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন- তাদের সঙ্গে নিহত বাবলু শেখদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। সেই বিরোধের জেরে গত ৪ মে সকালে টেঁটা, বল্লম, রামদা, সড়কিসহ দেশীয় অস্ত্র বাবলু শেখের বাড়িতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। এ সময় বাবলু শেখ তার ও ছেলে নাজমুল শেখ কিছু বুঝে ওঠার আগেই মুকুল শেখের কোপে গুরুতর জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। অন্যান্য আসামিরা বাবলুর মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য এলোপাতাড়ি পিটিয়ে পালিয়ে যান।
পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে তেরখাদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্থানীয়রা। তবে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক বাবুল শেখকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত বাবলু শেখের ছেলে নাজমুল শেখ বাদী হয়ে খুলনার তেরখাদা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

পরবর্তীতে সোমবার রাতে ঢাকার আশুলিয়া থানার জিরাবো এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুকুল শেখকে গ্রেফতার করে সিআইডি।