মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ২০ ১৪২৯   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
৯৭

চোখে কালো কাপড় বেঁধে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মৌন প্রতিবাদ 

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

চোখে কালো কাপড় বেঁধে ধর্ষণ, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলা ও অন্ধ গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসনের দায়িত্ব অবহেলার প্রতিবাদ জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের তৃতীয় দিনে চতুর্থ কর্মসূচি ছিল এটা।

 

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে চোখে কালো কাপড় বেঁধে মৌন প্রতিবাদ জানাই তারা। এসময় তারা হাতে বিভিন্ন ¯ে¬াগান সংবলিত প্লযাকার্ড নিয়ে থাকে। প্লযাকার্ডে লেখা থাকে, 'স্টপ রেপ', 'উই ওয়ান্ট জাস্টিস', 'শিক্ষকের উপর হামলার বিচার চাই' ইত্যাদি ¯ে¬াগান। 

এর আগে দিনের শুরুতে সকালে জাতীয় সংগীত গেয়ে আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করে শিক্ষার্থীরা। পরে সংবাদ সম্মেলন ও শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

 

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা জানান, চারটি দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। প্রধানমনত্রী শেখ হাসিনা যতক্ষণ আমাদের নিরাপত্তার বিষয়ে নিশ্চয়তা না দিবে ততক্ষণ আমরা নিরাপদ না। যেখানে জীবনের নিরাপত্তা নেই, সেখানে পড়াশোনা করবো কিভাবে? 

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে বশেমুরবিপ্রবির এক শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নবীনবাগ এলাকা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করে স্থানীয় ৭/৮ জন ধর্ষক। ধর্ষকদের শা¯Íির দাবিতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধকালে স্থানীয়রা হামলা চালায় আন্দোলনকারীদের উপর। এতে আহত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, প্রক্টরসহ অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।চোখে কালো কাপড় বেঁধে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মৌন প্রতিবাদ 

 

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ চোখে কালো কাপড় বেঁধে ধর্ষণ, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলা ও অন্ধ গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসনের দায়িত্ব অবহেলার প্রতিবাদ জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের তৃতীয় দিনে চতুর্থ কর্মসূচি ছিল এটা।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে চোখে কালো কাপড় বেঁধে মৌন প্রতিবাদ জানাই তারা। এসময় তারা হাতে বিভিন্ন ¯ে¬াগান সংবলিত প্লযাকার্ড নিয়ে থাকে। প্লযাকার্ডে লেখা থাকে, 'স্টপ রেপ', 'উই ওয়ান্ট জাস্টিস', 'শিক্ষকের উপর হামলার বিচার চাই' ইত্যাদি ¯ে¬াগান। 

এর আগে দিনের শুরুতে সকালে জাতীয় সংগীত গেয়ে আন্দোলন কর্মসূচি শুরু করে শিক্ষার্থীরা। পরে সংবাদ সম্মেলন ও শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

 

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা জানান, চারটি দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। প্রধানমনত্রী শেখ হাসিনা যতক্ষণ আমাদের নিরাপত্তার বিষয়ে নিশ্চয়তা না দিবে ততক্ষণ আমরা নিরাপদ না। যেখানে জীবনের নিরাপত্তা নেই, সেখানে পড়াশোনা করবো কিভাবে? 

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে বশেমুরবিপ্রবির এক শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নবীনবাগ এলাকা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করে স্থানীয় ৭/৮ জন ধর্ষক। ধর্ষকদের শা¯Íির দাবিতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধকালে স্থানীয়রা হামলা চালায় আন্দোলনকারীদের উপর। এতে আহত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, প্রক্টরসহ অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।


 

এই বিভাগের আরো খবর