শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৭ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
২৪ ঘণ্টায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণ দু’চার দিনের মধ্যে ওষুধ আসছে : কাদের ‘ডেঙ্গু নিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সরকার ব্যর্থ’ ক্ষমা চাইলেন মেয়র আতিকুল রাজধানীর ২৪ হাটে পশু বেচাকেনা শুরু ডেঙ্গু প্রতিরোধে ৫৩ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্ধ ঢাবির ৬৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার দেশের চতূর্থ মানব রোবট তৈরি করলো কুবি শিক্ষার্থীরা
৮৮

বাংলাদেশের ৫৩ প্রেক্ষাগৃহে ‘বিবাহ অভিযান’

প্রকাশিত: ২৪ জুলাই ২০১৯  

বাংলাদেশের ৫৩টি প্রেক্ষাগৃহে আগামী ২৬ জুলাই মুক্তি পাচ্ছে কলকাতার সিনেমা ‘বিবাহ অভিযান’। বিরসা দাশগুপ্ত পরিচালিত এই সিনেমায় মূল ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া, অঙ্কুশ, রুদ্রনীল ঘোষ, সোহিনী সরকার, প্রিয়াঙ্কা সরকার এবং অনির্বাণ ভট্টাচার্য। 

দুই মানিকজোড় বন্ধু অনুপম (অঙ্কুশ) এবং রজত (রুদ্রনীল) এর জীবনে ঘটে চলা ঘটনাগুলোকে কেন্দ্র করেই নির্মাণ করা হয়েছে ‘বিবাহ অভিযান’। অনুপম, কিছুটা ঠাণ্ডা প্রকৃতির নিপাট ভদ্রলোক। তার বিয়ে হয় ডানপিটে রাই (নুসরাত) এর সাথে। অপরদিকে বেশ চটপটে আর বাকপটু বিতার্কিক রজত পরিবারের পছন্দে বিয়ে করে একেবারেই বিপরীত মেরুর মেয়ে মায়া (সোহিনী) কে। বিয়ের পাট চুকতে না চুকতেই দাম্পত্য জীবনের নানা ঘাত-প্রতিঘাত হাড়েহাড়ে টের পায় দুই বন্ধু। আর এই অবস্থা থেকে মুক্তি খোঁজার লক্ষ্যেই যাত্রা শুরু করে হাস্যরসে পরিপূর্ণ এক অভিযান। স্বামী-স্ত্রী এর মাঝে চোর-পুলিশ খেলার মজাদার সব দ্বন্দ্ব আর কৌতুককর ঘটনাবহুল এক গল্প থেকেই নির্মাণ করা হয়েছে ছবিটি।

সিনেমাটি প্রসঙ্গে নুসরাত ফারিয়া বলেন, হাস্যরস নির্ভর এই চলচ্চিত্রটি সিনেমা হলে দমফাটানো হাসির উপলক্ষ তৈরি করে দেবে। দেশে আমার ভক্তদের সাথে সিনেমাটি একত্রে দেখবো বলে অপেক্ষায় ছিলাম। চলচ্চিত্রপ্রেমী ও ভক্তদের সাথে একত্রে শীষ বাজিয়ে আর হইহুল্লোড় করে হল মাতিয়ে রেখে সিনেমা দেখার তর সইছে না।
বিরসা দাশগুপ্ত বলেন, চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে সবসময়ই একটি স্বপ্ন ছিলো সকল বাংলাভাষীর বিনোদনের খোরাক তৈরি করবো। বাংলাদেশে ‘বিবাহ অভিযান’ এর মুক্তির মধ্য দিয়ে সে স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে।