ব্রেকিং:
একে একে ১৩টি কফিন নিলো পরিবার তাপমাত্রা একদফা কমে বিদায় নেবে শীত

শনিবার   ২৩ মার্চ ২০১৯   চৈত্র ৮ ১৪২৫   ১৫ রজব ১৪৪০

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই মেক্সিকোতে জ্বালানি পাইপলাইনে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭৩ স্বাস্থ্যখাতের মাফিয়া ডন মিঠু! সংরক্ষিত মহিলা আসনে লাকসামের রিনা আলম আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী অনিয়মে শাস্তি পেল ৩৭ হজ এজেন্সি প্রধানমন্ত্রী ও জাতীয় নেতাদের নামে ফেসবুক খুলে প্রতারণা, গ্রেফতার ৫ ২৭ জানুয়ারি থেকে মোবাইল ফোনের সাত দিনের নিচের সব প্যাকেজ বন্ধ
৪৬

পানবাজার সড়কে ‘রহস্যজনক’ ব্যারিকেড, জনভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০১৮  

কক্সবাজার শহরের ব্যস্ততম পানবাজার সড়কের দক্ষিণ মাথায় ‘রহস্যজনক’ ব্যারিকেড স্থাপন করা হয়েছে। এ কারণে এই সড়কের আশপাশের অন্তত ৫শ ব্যবসায়ীর ক্ষতি হচ্ছে। ব্যাঘাত ঘটছে যানবাহন চলাচলে। কোন কারণ ছাড়াই সড়কটি বন্ধ করে দেয়ায় প্রভাব পড়ছে এন্ডাররোডে। সড়কটি বন্ধ করে দেয়ায় প্রভাব পড়েছে আশপাশের সড়কগুলোতে।  চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগীদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এতে করে ব্যবসায়ীরাসহ স্থানীয়রা চরম ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন।

প্রায় ১৫ দিন আগে পানবাজার সড়কের দক্ষিণ মাথায় রাতের আধারে ব্যারিকেট স্থাপন করা হয়। লোহার এঙ্গেলযুক্ত শক্তিশালী ব্যারিকেড কে বা কারা স্থাপন করেছে সে সম্পর্কে স্পষ্ট হওয়া যায়নি।

একটি সূত্র জানিয়েছে, ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে এই ব্যারিকেড বসানো হয়েছে। তবে, কি কারণে বসানো হয়েছে তা এখনো অজানা।


জানতে চাইলে পানবাজার সড়কস্থ কক্সকো মেডিকোর সত্ত্বাধিকারী ও শহর কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি পৌর আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমরা পানবাজার সড়কে ব্যবসা করে আসছি। কিন্তু এভাবে রাতের অন্ধকারে চলাচলের রাস্তায় প্রতিরোধক স্থাপন করা উচিত হয়নি। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ব্যবসায়ীরা। বাধাগ্রস্ত হচ্ছে পথচারীরা।

ফিরোজা শফিং ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. আব্দুল মান্নান বলেন, ব্যারিকেডের কারণে সব ব্যবসায়ীর ক্ষতি হচ্ছে। সড়কের উপর অস্থায়ী দোকান বসে গেছে।

এদিকে, রহস্যজনক এই ব্যারিকেড সরাতে সংশ্লিষ্টদের ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে পানবাজার সড়কের ব্যবসায়ীরা। আগামী রবিবার পুলিশ সুপারকে স্মারকলিপি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। তাতে কাজ না হলে নিজেরাই ব্যারিকেড ভেঙ্গে ফেলার হুঁশিয়ারি দিয়েছে। এ বিষয়ে বুধবার (৭ নভেম্বর) রাত ১০ টার দিকে বাটা মার্কেট প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সর্বসম্মতভাবে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।