বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
সর্বশেষ:
প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন মঙ্গলবার দাবি না মানলে বিদ্যালয়ে তালা লাগাবে প্রাথমিকের শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রী রাজশাহী যাচ্ছেন রোববার লাকসামে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য গ্রেফতার খাল উদ্ধারের পর চালু হবে ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট : তাজুল ইসলাম ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ এখন ঢাকায় শেখ হাসিনার একান্ত প্রচেষ্টায় ৫০০ মডেল মসজিদ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে নতুন ডিএমপি কমিশনারের শ্রদ্ধা
৮৭

চন্দ্রযান ২ ব্যর্থ: মোদিকে জড়িয়ে কাঁদলেন ইসরো চেয়ারম্যান

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ব্যর্থ হয়েছে ভারতের চন্দ্র অভিযান প্রকল্প। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে শুক্রবার রাত ১টা ৫৩ মিনিটে চাঁদের মাটিতে পা রাখার কথা ছিলো ভারতের চন্দ্রযান-২’র। কিন্তু চাঁদের মাত্র ২.১ কিলোমিটার আগে থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে ল্যান্ডার বিক্রমের। চন্দ্রযান ২-এর মতো চ্যালেঞ্জিং প্রকল্পে আশানুরূপ ফল না মেলায় হতাশ ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর বিজ্ঞানীরাও। আবেগ লুকাতে পারলেন না ইসরোর চেয়ারম্যান বিজ্ঞানী কে শিবন-ও। প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়লেন তিনি।


ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানায়, চন্দ্রযান-২ ব্যর্থ হওয়ার খবরে মুষড়ে পড়েছে গোটা ভারত। হতাশ ইসরোর বিজ্ঞানীরাও। শনিবার সকালে জাতির উদ্দেশে ভাষণের পর ইরসো থেকে বেরিয়ে আসছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তখন নিজের হতাশা আর আবেগকে চেপে রাখতে পারলেন না কে সিভন। মোদির কাঁধে মাথা রেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। তখন ভেঙে পড়া সিভনকে সামলে নেন মোদি। তাকে জড়িয়ে ধরে পিঠ চাপড়ে সান্ত্বনা দেন মোদি। এই দৃশ্যের ভিডিও দেখে আবেগে আপ্লুত গোটা ভারত।

তবে হতাশ নন প্রধানমন্ত্রী মোদি। জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে তিনি গোটা দেশকে আশার বাণী শুনিয়ে গেছেন মোদি। আগামীতে ফের চন্দ্র অভিযান শুরু করারও ইঙ্গিত দিয়েছেন।

মোদি তার ভাষণে এই অভিযানের সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানীদের গোটা টিমকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, ‘আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি, অভিযানের জন্য সার্বিক চেষ্টা করা হয়েছে। গোটা টিম নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে অনেক দূর এগিয়েছে। আজ আমাদের এই ব্যর্থতা আগামীদিনে আরও শক্ত ও আরও ভালো হতে সাহায্য করবে। একটা নতুন ভোর আসবেই। ব্যর্থতা বলে কিছু নেই, শুধুই চেষ্টা আর পরীক্ষা।’

তিনি চন্দ্র বিজয়ে নতুন অভিযান শুরুর ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, ‘প্রতিটা ভারতবাসী আমাদের বিজ্ঞানীদের নিয়ে গর্বিত এবং তারা আরও আত্মবিশ্বাসীও হলেন। চাঁদে পৌঁছনোর জন্য আমাদের ইচ্ছাশক্তি আরও প্রবল হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, চন্দ্রযান-২’র ৪৭ দিনের যাত্রার শেষ দিন ছিলো শুক্রবার। রাত ১টা ৫৩ মিনিটে চাঁদের মাটিতে পা রাখার কথা ছিলো বিক্রমের, দক্ষিণ মেরুর কাছে। যেখানে আজ পর্যন্ত আর কোনো দেশের যান পা রাখেনি। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ব্যর্থ হয় ভারতের এই চন্দ্র অভিযান।

এই বিভাগের আরো খবর