বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

তরুণ কণ্ঠ|Torunkantho
১৫৫

ক্রিকেটারদের দাবি নিয়ে কথা বলতে গণভবনে পাপন

তরুণ কণ্ঠ ডেস্কঃ

প্রকাশিত: ২৩ অক্টোবর ২০১৯  

বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলতে গণভবনে গেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

এর আগে আজ বুধবার বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছেন, আন্দোলন নিয়ে ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে নিজেদের আগ্রহের কথা।

ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়া নিয়ে আলোচনায় বসতে আজ বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত অপেক্ষা করবে বিসিবি। এ প্রসঙ্গে সুজন বলেন, ‘আমাদের বোর্ড সভাপতির নির্দেশে আমরা খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করি। আমার সঙ্গে এরই মধ্যে তামিম ইকবালের কথা হয়েছে। আমরা তাকে অনুরোধ করেছি যত দ্রুত সম্ভব বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে। আমরা তাদের বোর্ডের অবস্থান জানিয়েছি। দলের বাকি সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে সে আমাদের জানাবে।’

তিনি আরো জানান, বিসিবির সঙ্গে আলোচনায় বসার আগে ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে আলোচনায় বসবেন। সিইও বলেন, ‘আমরা যতটা শুনেছি, তারা আজ আগে নিজেরা কোথাও আলোচনায় বসবে। তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আমরা আছি। তারা চাইলে যেকোনো জাগায় আমরা আলোচনায় বসতে রাজি আছি।’

বেশ কিছু দাবি-দাওয়া নিয়ে হঠাৎ করেই ধর্মঘটের ডাক দেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তাঁরা দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত কোনো ধরনের ক্রিকেট খেলবেন না বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। গত সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

ক্রিকেটারদের সব দাবি বিসিবি মেনে নেবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে সিইও বলেন, ‘বোর্ড সভাপতি গতকালই জানিয়েছেন যে বিষয়গুলো নিয়ে ক্রিকেটাররা আন্দোলন করেছে, সেগুলো আলোচনায় বসে সমাধান করা সম্ভব। এই বিষয়গুলো নিয়ে তার সম্মতির কথা তিনি এরই মধ্যে জানিয়েছেন। এখন আমরা চেষ্টা করছি, দেখা যাক। বিষয়গুলো যতদ্রুত নিষ্পত্তি হয়, সেটা সবার জন্যই ভালো হবে।’

এর আগে এই আন্দোলনের কারণ সম্পর্কে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘কাল থেকে কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হচ্ছে। আসল কারণ হচ্ছে, এই সব কোচ খেলোয়াড়দের পছন্দ নয়। তাই ভারত সফরের আগেই এই আন্দোলনের ডাক দেয় তারা।’

ক্রিকেটারদের এই আন্দোলন পরিকল্পনার অংশ বলে মনে করেন নাজমুল হাসান, ‘সবকিছুই পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছে। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা বলা হচ্ছে। ৯৯ শতাংশ মানুষ ক্রিকেটকে ভালোবাসে। জাতিকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। একজন খেলোয়াড় কী পরিমাণ টাকা পায়, আপনারা জানেন না।’

ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চক্রান্ত চলছে বলেও মনে করেন তিনি, ‘ওরা কেন আগে আমাদের কাছে আসেনি। তারা জানে, দাবিগুলো নিয়ে এলে আমরা তা মেনে নেব, তাই আসেনি। আসলে বিদেশে বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চক্রান্ত চলছে। এতে সফল হয়েছে তারা।’

এই বিভাগের আরো খবর